ধস নামল অখিলেশ যাদবের সপার দুর্গে, ঝড় তুলে ফুটল পদ্ম

আমাদের ভারত, ২৬ জুন: রবিবার উত্তরপ্রদেশে লোকসভা নির্বাচনের দুটি আসনেই জয় ছিনিয়ে নিল বিজেপি। রামপুরা আসনে বিজেপির প্রার্থী ঘনশ্যাম লোধি জয়ী হয়েছেন ৪২ হাজারেরও বেশি ভোটে। অন্যদিকে আজমগড় কেন্দ্র জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী দীনেশ লাল যাদব। এই দুটি কেন্দ্র সমাজবাদী পার্টির গড় হিসেবে পরিচিত। আজমগড়ের সংসদ ছিলেন সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব। চলতি বছরে বিধানসভা নির্বাচনে তার জয়ের পরে কেন্দ্রটি ফাঁকা হয়েছিল। অন্যদিকে রামপুরের সাংসদ ছিলেন দলের অন্যতম বড় নেতা আজম খান। দুই আসনেই জয় ছিনিয়ে নিয়েছে বিজেপি।

আজ গণনা শুরুর প্রাথমিক পর্যায়ে দুটি কেন্দ্রে সমাজবাদী পার্টির প্রার্থীরা এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু সময় যেতেই পদ্ম শিবির টক্কর দিতে শুরু করে। দুপুর বারোটা নাগাদ সমাজবাদী পার্টিকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যায় বিজেপির প্রার্থীরা। কিছু পরেই দুই কেন্দ্রের সমাজবাদী প্রার্থীর সঙ্গে ব্যবধান বাড়িয়ে ফেলে পদ্ম প্রার্থীরা।

শুরুতে সমাজবাদী পার্টির আজামগড়ের প্রার্থী ধর্মেন্দ্র প্রধান দাবি করেছিলেন তিনি ঐতিহাসিক জয় পেতে চলেছেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শেষ হাঁসি হাসেন পদ্ম শিবিরের দীনেশ লাল যাদব। ২০০৯ সালের পর থেকে আজমগড় লোকসভায় পরাজিত হয়নি সমাজবাদী পার্টি। এমনকি মাস কয়েক আগেও বিধানসভা নির্বাচনে বিধানসভা কেন্দ্র থেকে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছেন সমাজবাদী প্রধান অখিলেশ যাদব। অথচ উপনির্বাচনে ধস নামল দলের।

আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তরপ্রদেশের ২ আসনের ফলাফল সামনে আসতেই মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ টুইট করে এই জয়কে ঐতিহাসিক জয় বলেছেন। হিন্দিতে তিনি লিখেছেন, “উপনির্বাচনে আজামগড় ও রামপুরা লোকসভা আসনে ঐতিহাসিক বিজয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ডবল ইঞ্জিন বিজেপি সরকারের জনকল্যাণমূলক নীতির ফল। এই জয় বিজেপির সমস্ত পরিশ্রমী সমর্থকদের উৎসর্গ করা হল। আমি আজমগড়ের জনতাকে ধন্যবাদ জানাই।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here