মহিলা রোগীর সঙ্গে অভব্য আচরণের অভিযোগ, বেলপাহাড়িতে অভিযুক্ত সিআরপিএফ জওয়ানকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ আদালতের

অমরজিৎ দে, ঝাড়গ্রাম, ২৯ জুলাই: চিকিৎসা করাতে এসে মহিলা রোগীর সঙ্গে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনীর একজনকে গ্রেপ্তার করে আজ কোর্টে তোলা হয়। বিচারক অভিযুক্তকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গতকাল ঝাড়গ্রাম জেলার বেলপাহাড়ি থানার বুড়িঝোর এলাকায় দুপুর নাগাদ সিআরপিএফের দুই জওয়ান প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ডাক্তার দেখাতে আসেন। সেখানে চিকিৎসাধীন এক আদিবাসী মহিলার ওপর অভব্য আচরণ করেন বলে অভিযোগ। এই খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে আদিবাসী মানুষ জমায়েত হতে শুরু করে। শেষে প্রাণভয়ে সিআরপিএফের ওই জওয়ান বাথরুমের ভেতরে ঢুকে পড়ে দরজা বন্ধ করে দেয়।

ঘটনার খবর পেয়ে বেলপাহাড়ি থানার আইসি বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হন। শেষে পুলিশ ওই জওয়ানকে গ্রেপ্তার করলে রাত দশটার পর এলাকার মানুষজন বিক্ষোভ দেখান।

অনদিকে অভিযুক্ত ওই জওয়ান জানান, তিনি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন। বাংলা পড়তে না পেরে মহিলা ওয়ার্ডে ঢুকে পড়েন। সেখানে এক মা তখন তার বাচ্চাকে দুধ খাওয়াচ্ছিলেন। এটা চোখে পড়তে সেখান থেকে সরে তিনি যান। এর পরেই ঐ মহিলা তার স্বামীকে কি সব বলেন এবং তাকে মারধর করা হয়। তাকে চাকরি থেকে বরখাস্তও করা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here