অসহায় মানুষের পাশে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রাক্তনীরা

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ৩ মে: লকডাউনের কঠিন সময়ে অসহায় মানুষদের দিকে সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দিলেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রাক্তনীরা। প্রাক্তনীদের তরফে শুরু হওয়া ত্রাণ কর্মসূচির অঙ্গ হিসেবে প্রথম পর্যায়ে রবিবার সকালে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনী ব্লকের কর্ণগড় ও পীর চক এলাকার ৫০টিরও বেশি দুঃস্থ আর্থিক দিক থেকে প্রবল ভাবে পিছিয়ে পড়া দুঃস্থ পরিবারের হাতে অতি প্রয়োজনীয় খাদ্য-সামগ্রী, মাস্ক ও স্যানিটাইজার তুলে দেওয়া হয়। এছাড়াও প্রাক্তনীর সদস্যরা এই এলাকার মানুষদের উদ্দেশ্যে এই মহামারীর আবহে আবশ্যকীয় পালনীয় স্বাস্থ্য-বিধি সম্পর্কে সচেতনতার বার্তা দেন। প্রাক্তনীদের এই কর্মসূচিতে কর্ণগড় গ্রাম পঞ্চায়েতের তরফে সব রকমের প্রশাসনিক সহযোগিতা জন্য প্রাক্তনীর তরফে গ্রাম পঞ্চায়েতের কর্তাদের ধন্যবাদ জানানো হয়।

ইংরেজি বিভাগের প্রাক্তনী সংসদের পক্ষে প্রফেসর ড: জয়জিৎ ঘোষ বলেন, এই মহৎ কাজের জন্য প্রাক্তনীর সদস্যরা স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে এগিয়ে এসেছেন এবং সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন বিভাগের সাথে যুক্ত অধ্যাপক-অধ্যাপিকারা। জয়জিৎবাবু বিশেষ ভাবে কৃতজ্ঞতা জানান, বিভাগের বর্তমান বিভাগীয় প্রধান ড: জলি দাসকে, তাঁর সক্রিয় সহযোগিতা ও অভিভাবকসুলভ পৃষ্ঠপোষকতার জন্য। ড: ঘোষ আরো জানান, বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগের প্রাক্তনীরা আগামী দিনেও এইভাবে জেলা, পাশ্ববর্তী জেলা ও সংলগ্ন বিভিন্ন প্রান্তে‌ অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবেন।

এদিন কর্ণগড়-পীরচক এলাকার পরিবার গুলির পক্ষ থেকে এলাকার যুবক সুকুমার নায়েক জানান, মহামারীর এই কর্মনাশা, রুজি-রোজগারহীন পরিস্থিতিতে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রাক্তনী সংসদের এই উদ্যোগ যথেষ্ট প্রশংসনীয় এবং এই রসদ আগামীদিনে তাঁদের জীবন যুদ্ধে লড়াই করতে অণুপ্রেরণা যোগাবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here