ফেরত দিতে হবে আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকা, মাথায় হাত বৃদ্ধা সরস্বতী সিংয়ের

আমাদের ভারত, হুগলী, ৮ আগস্ট: পান্ডুয়া ব্লকের ইটাচুনা খন্যান গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীন মাকাল্ডি গ্রামের বাসিন্দা সরস্বতী সিং। বয়স ৬৫ বছর। বহু বছর আগে স্বামী মারা গেছেন।ছেলে শঙ্কর সিং মাঠে দিন মজুরের কাজ করে। ছেলে বউ আলাদা থাকার কারণে নিজের ভাত নিজেকেই জোগাড় করতে হয়। তাই দুমুঠো খাবারের আশায় বিভিন্ন জায়গায় ভিক্ষা করে কোনও রকমেই দিন কাটে তার। ছোটো একটি ঘরেই তার দিন কেটে যেতো। কিন্তু কাল হল আমফান ঝড়। ঝড়ে ভেঙ্গে যায় তার ঘর। ঝড়ে ঘর ভাঙ্গার খবর যায় পঞ্চায়েতে। তড়িঘড়ি কাগজপত্র তৈরী করে আমফানের টাকা চলে আসে সরস্বতী সিংয়ের ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টে। হাতে টাকা পেয়ে মায়ের ঘর ঠিক করে ফেলবে বলে ঠিক করে ছেলে শঙ্কর সিং।

পুরানো ঘর ভেঙ্গে নতুন ঘর তৈরীর মাঝেই পঞ্চায়েত থেকে কিছু লোক এসে একটি কাগজ তাদের হাতে ধরিয়ে দেয়, যাতে লেখা ছিল তাদের অ্যাকাউন্টে আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকা ২০ হাজারের বদলে ৪০ হাজার টাকা ভুল করে দেওয়া হয়েগেছে। তাই তাদের ২০ হাজার টাকা তাড়াতাড়ি পঞ্চায়েতকে ফেরত দিতে হবে। ঐ টাকায় ঘরের কাজ সম্পূর্ণ শেষ হয়নি। তাতেই মালপত্র কিনে সব টাকা শেষ হয়েগেছে।

ভিক্ষা করে কোনও রকমে দিন চলতো কিন্তু পঞ্চায়েত কথায় কি করে সরকারি টাকা ফেরত দেবেন সে কথা চিন্তা করেই ভয়ে দিন কাটাচ্ছেন সরস্বতী সিং।
কি করে একই অ্যাকাউন্টে দুবার টাকা এল, উঠছে সে প্রশ্নও। যদিও পঞ্চেয়েত প্রধান বলছেন দু জায়গায় আবেদন করার ফলেই এই ভুল। যদিও কয়েকটি ইনস্টলমেন্টে টাকা ফেরত দেবার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সরস্বতী সিং বলে জানান পঞ্চায়েত প্রধান।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here