সরকারি অফিসে জঙ্গি হানা, ফের সন্ত্রাসিদের গুলিতে মৃত্যু হল এক কাশ্মীরি পন্ডিতের

আমাদের ভারত, ১২ মে: এবার জম্মু-কাশ্মীরের একটি গ্রামীণ সরকারি অফিসে হামলা চালালো সন্ত্রাসবাদীরা। জঙ্গিদের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে এক কাশ্মীরি পন্ডিতের। জানা গেছে, পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক দূরত্ব থেকে ওই ব্যক্তিকে গুলি করে মারে জঙ্গিরা। আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের বদগাঁওয়ের চাদুরা নামের একটি গ্রামের তহশীলদার অফিসে জঙ্গি হামলা হয়। ওই অফিসেরই কর্মী কাশ্মীরি পন্ডিত রাহুল ভাটকে গুলি করে হত্যা করে জঙ্গিরা। ঘটনার কথা টুইট করে জানিয়েছে কাশ্মীর পুলিশ। ওই টুইটে বলা হয়, বাদগাঁওয়ের চাদুরা গ্রামের তহশিলদার অফিসে এক সংখ্যালঘু ব্যক্তির ওপর হামলা চালায় জঙ্গিরা। তাকে লক্ষ্য করে গুলি করা হয়। আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।” যদিও শ্রীনগরের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় রাহুল ভাটের।

গত ৮ মাস ধরে কাশ্মীরের সংখ্যালঘু সম্প্রদায় ও পরিযায়ী শ্রমিকদের ওপর একের পর এক হামলা চালাচ্ছে জঙ্গিরা। গত অক্টোবর থেকে এই ধরনের হামলা ক্রমেই বাড়তে শুরু করেছে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ভিন রাজ্য থেকে আসা শ্রমিক ও কাশ্মীরি পণ্ডিতদের ওপর হামলা চালানো হচ্ছে। শুধু অক্টোবর মাসেই ৫ দিনে ৭ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। এদের মধ্যে রয়েছে কাশ্মীরি পন্ডিত এবং দুজন প্রবাসী হিন্দু। জানা গেছে, লাগাতার এমন ঘটনার পর শিখপোরার সংখ্যালঘু কাশ্মীরি পন্ডিতরা এলাকা ছাড়তে শুরু করেছেন। অন্যদিকে নিরাপত্তারক্ষীরা জঙ্গি কার্যকলাপ দমনে সক্রিয় ভূমিকা নিচ্ছেন। এ ঘটনার পর আততায়ীদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি বলে জানা গেছে।

এদিকে কাশ্মীর সহ গোটা ভারতে জঙ্গি হামলা চালাতে নতুন নতুন ছক কষছে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই বলে জানা যাচ্ছে। খালিস্তানি ও কাশ্মীরের জঙ্গিদের নিয়ে একটি নতুন জঙ্গি গোষ্ঠীও তারা তৈরি করেছে। সেই নতুন জঙ্গি গোষ্ঠীর নাম দেওয়া হয়েছে লস্কর-ই খালসা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here