করোনার ফলে রুটিরুজিতে টান পড়েছে জেলার পেশাদার খেলোয়াড়দের

স্বরূপ দত্ত, উত্তর দিনাজপুর, ৩১ জুলাই: করোনায় এদের শুধু প্রতিভাই নষ্ট করে দিচ্ছে না, টান পড়েছে রুজি রুটিতেও। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশজুড়ে চলা লকডাউনে বন্ধ হয়ে গিয়েছে খেলাধূলা। রায়গঞ্জের বেশকিছু প্রতিভাবান ক্রিকেটার ভিনরাজ্যে বা ভিন জেলায় গিয়ে টাকার বিনিময়ে ক্লাব ক্রিকেট খেলে। তাদের একপ্রকার বাড়িতে বসে থেকেই নিজেদের ক্রিকেট প্রতিভা যেমন নষ্ট হয়ে যেতে বসেছে তেমনি বন্ধ হয়ে গিয়েছে তাদের রোজগারের পথ। কেননা তারা ক্রিকেট খেলাটাকেই পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন। করোনার কারনে কোথাও খেলা না হওয়ায় সমস্যায় পড়ে গিয়েছেন রায়গঞ্জ শহরের বেশকিছু ক্রিকেটার।

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বন্ধ হয়ে গিয়েছে মাঠ ও মাঠের সব ধরনের খেলাধুলা। যেকোনও খেলা সে ক্রিকেট হোক বা ফুটবল বা অ্যাথলেটিকস সবই এখন বন্ধ হয়ে রয়েছে। আর এর জেরে চরম সমস্যায় পড়েছেন রায়গঞ্জের বেশকিছু পেশাদার ক্রিকেটার। এরা টাকার বিনিময়ে ক্লাব ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলতে বিহার, ঝাড়খণ্ড, আবার কখনও বা বাইরের জেলা দক্ষিণ দিনাজপুর, দার্জিলিং, মালদা, জলপাইগুড়ি কিংবা কোচবিহারেও যান। ভিনরাজ্যে খেলতে গেলে তাঁরা ৫/৬ হাজার টাকা প্রতি ম্যাচে পেতেন আবার ভিন জেলায় খেললে পেতেন ৩/৪ হাজার টাকা। কখনও নিজের জেলাতেও ক্লাব ক্রিকেট খেলে পেতেন ১/২ হাজার টাকা। কিন্তু এখন সেসব বন্ধ। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব বিধির কারনে সব ধরনের খেলাধুলা বন্ধ হয়ে রয়েছে। ফলে চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছেন উত্তর দিনাজপুর জেলা সদর রায়গঞ্জ শহরের পেশাদার ক্রিকেটাররা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here