গভীর রাতে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে রোগীর পালানোর চেষ্টা, আতঙ্ক ছড়াল রায়গঞ্জে

আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ১১ এপ্রিল: শুক্রবার গভীর রাতে রায়গঞ্জ গভঃ মেডিকেল কলেজের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ভিনরাজ্যের এক রোগীর পালানোর চেষ্টাকে ঘিরে আতঙ্ক ছড়ায়। পুলিশ, দমকল, স্বাস্থ্যকর্মীদের দীর্ঘ চেষ্টার পরে পুনরায় রোগীকে ওয়ার্ডে ফেরাতে সক্ষম হয় হাসপাতাল কতৃপক্ষ। দীর্ঘ নাটকের অবসান হলেও ওই রোগীর পালানোর চেষ্টার বিষয় জানাজানি হতেই আতঙ্ক ছড়ায় মেডিকেল কলেজ চত্বরে। যদিও মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ওই রোগী আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকলেও এখনও তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসেনি।

শুক্রবার রাত ১১টার পর রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে উত্তর প্রদেশের এক রোগীর পালানোর চেষ্টাকে ঘিরে চাঞ্চল্য চড়ায়। উত্তর প্রদেশের ওই রোগীকে করোনা সন্দেহে আইসোলেশন ওয়ার্ডে পাঠান হাসপাতালের চিকিৎসকরা। প্রায় ১২ দিন আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসা করালেও শুক্রবার গভীর রাতে মেডিকেল কলেজের ৩ তলার আইসোলেশন ওয়ার্ডের জানলার কার্নিশ বেয়ে পালাবার চেষ্টা করেন ওমপ্রকাশ৷ সেই মুহূর্তে হাসপাতালে থাকা সুরক্ষা কর্মী ও পুলিশ বাহিনী বিভিন্ন দিক থেকে তাকে কার্নিশের মধ্যেই ঘিরে ফেলেন। খবর যায় রায়গঞ্জ থানা ও রায়গঞ্জ দমকল কর্মীদের কাছে। সকলের মিলিত চেষ্টায় প্রায় আড়াই ঘন্টা নাটকের পর ওই রোগীকে উদ্ধার করে ফের আইসোলেশন ওয়ার্ডে পাঠানো হয়৷

রোগী জানিয়েছেন জ্বর ও মুখ দিয়ে রক্ত পড়ার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্ত্তি হয় সে। এদিন রাস্তা বুঝতে ভুল হওয়ায় ভুল করে কার্নিশ দিয়ে নেমে পড়েছিলেন তিনি।

রায়গঞ্জ গভঃ মেডিকেল কলেজের এ্যসিস্টান্ট সুপারিনটেন্ডেন্ট অভীক মাইতি জানান, রোগী সম্ভবত মানসিক সমস্যার জন্য আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে পালাতে চাইছিলেন। আমরা ওর কাউন্সিলিং করাব। তবে আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকলেও ওই রোগীর করোনা পজিটিভ কোনো রিপোর্ট নেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here