আরামবাগে বিজেপির উপর হামলা, আহত ৭      

গোপাল রায়, আমাদের ভারত,আরামবাগ, ২৫ মে: ইলেকট্রিকের তার টানাকে কেন্দ্র করে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে। এই সংঘর্ষে বিজেপির সংখ্যালঘু মোর্চার সভাপতি সহ আহত সাতজন। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় ঘটনাস্থলে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে আরামবাগ থানার মোবারকপুর এলাকায়। আহত সাতজনের মধ্যে চারজন মহিলা। বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হয় তৃণমূলের দিকে। এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। আহতদের আরামবাগ মহকুমা হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে।

জানাগেছে , মঙ্গলবারবার সকালে বিজেপি নেতা সামসুর হকের জায়গার ওপর দিয়ে ইলেকট্রিকের তার জোর করে নিয়ে যাচ্ছিল তৃণমূলে লোকজন। তারই প্রতিবাদ করতে গেলে দু’পক্ষের মধ্যে বচসা শুরু হয়। অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বিজেপির সংখ্যা লঘু মোর্চার সভাপতি সামসুর হক ও কর্মীদের উপর চড়াও হয়। তাঁদের লাঠি, রড, দিয়ে মারধর করা হয়। সাতজন আহত হন। তাদের স্থানীয় মানুষ ও বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা উদ্ধার করে আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতদের অভিযোগ, তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা বলে, বিজেপি ছাড়তে হবে না হলে এলাকাছাড়া হবে। এমন কি প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। বিজেপির মন্ডল সভাপতি কিংকর পাল বলে, আমাদের সংখ্যালঘু মোর্চার সভাপতিকে প্রায় দিনই হুমকি দিয়ে বলে তাকে মারধর করা হবে। তাই মঙ্গলবার সকালে ইলেকট্রিকের তার টানাকে ইস্যু করে তৃণমূলের লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালায়।

তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। আরামবাগের তৃণমূলের ব্লক সভাপতি কমল কুশারী বলেন, এই ঘটনায় রাজনীতির রং লাগানো হচ্ছে, কিন্তু এটা পার্টির কোনও ব্যাপার নয়। দুই পাড়ার মধ্যে একটি গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের মধ্যে গন্ডগোল হয়েছে। এই ঘটনায় তৃণমূল কোনোভাবে জড়িত নয়।

          

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here