সিএএ ও এনআরসির দাবি নবান্ন পর্যন্ত পৌঁছে দিতে দলীয় কর্মীদের স্লোগানের সুর চড়াতে বললেন লকেট চ্যাটার্জি

নীল বনিক, আমাদের ভারত, ২৩ ডিসেম্বর: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের আওয়াজ নবান্ন পর্যন্ত পৌছে দেবার জন্য দলের কর্মীদের সুর চড়াতে বললেন লকেট চ্যাটার্জি।

আজ সুবোধমমল্লিক স্কোয়ার থেকে বিজেপির অভিনন্দন মিছিল শুরু হয়। মিছিল শুরু হতেই হুগলির সাংসদ দলীয় কর্মীদের কাছে আর্জি জানান, আপনারা সবাই বলুন এরাজ্যেও এনআরসি চাই। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে আওয়াজ একেবারে নবান্ন পর্যন্ত পৌছতে হবে। সাংসদের আর্জি মাত্রই বিজেপি কর্মীরা আওয়াজ তুললেন বাংলায় চাই এনআরসি।

তৃণমূলের চোঁখ রাঙানি উপেক্ষা করেই অভিন্দন মিছিলে জনজোয়ার বলে জানালেন লকেট চ্যাটার্জি। তিনি বলেন, সকাল থেকেই মানুষ কলকাতায় আসতে শুরু করেছেন। গেরুয়া পতাকা হাতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে মানুষ রাস্তায় নেমেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশের ভয় ত্যাগ করে মানুষ মিছিলে হাঁটছেন। যা রাজ্যের শাসক দলের কাছে খারাপ বার্তা। যদিও রাজ্য বিজেপি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা পুলিশের তোয়াক্কা করে না। পুলিশকে জানিয়েই বিজেপি অভিনন্দন মিছিল করছে। পুলিশ যা ব্যবস্থা নেবার আমাদের বিরুদ্ধে নিতেই পারে। বাংলায় তৃণমূল ছাড়া অন্যকোনও রাজনৈতিক দল মিছিলের অনুমতি পায় না। বিজেপিও বারবার মিছিলের অনুমতি পুলিশের কাছে চেয়েছিল। তবে পুলিশ তা দিতে অস্বীকার করেছে বলে দাবি করেন লকেট চ্যাটার্জি। কিন্তুু মানুষের কথা বলতে পুলিশের অনুমতি প্রয়োজন লাগে না। ভারতীয় জনতা পার্টি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল। তাই প্রশাসনের সঙ্গে সমঝোতা করে তাদের কর্মসূচি নিতে চায়। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ যদি গনতন্ত্র না মানে তাহলে বিজেপির কিছু করার নেই। বিজেপি দায়িত্বশীল দলের মতোই তাদের কর্মসূচি করছে বলে জানালেন লকেট চ্যাটার্জি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here