পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আন্দোলনের তীব্রতা বাড়াতে দিল্লিতে বাবান ঘোষের সঙ্গে বৈঠক বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের

নীল বনিক, আমাদের ভারত, কলকাতা, ২৯ জুলাই: রাজ্যের পরিযাযী শ্রমিকদের নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে দিল্লিতে বৈঠক। দলের শ্রমিক নেতা বাবান ঘোষের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা। বৈঠকে ছিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের ও কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

বৈঠকে আলোচনা হয় পরিযায়ী শ্রমিকদে বাড়ি ফিরতে বহু দুর্ভোগ সহ্য করতে হয়েছে। তার সম্পূর্ণ দায়ভার রাজ্য সরকারকে নিতে হবে। রাজ্য সরকারের খামখেয়ালী কার্যকলাপ এবং শ্রমিক বিরোধী উদাসীন মনোভাবের জন্যই এই অবস্থা হয়েছে। এছড়া হকারদের বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়। রাজ্যের উদাসীনতায় কেন্দ্রীয় সরকারের হকার্স যোজনার নানান সুবিধা পাওয়া থেকেও বঞ্চিত হচ্ছেন রাজ্যের হকাররা। হকারদের এই ক্ষোভকে কাজে লাগাতে চাইছে বিজেপি। বৈঠকে বিজেপি প্রভাবিত শ্রমিক সংগঠন ভারতীয় জনতা মজদুর ট্রেড ইউনিয়ন রাজ্য সভাপতি বাবান ঘোষকে শ্রমিকদের নিয়ে আন্দোলনে নামার পরামর্শ দেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

এই বৈঠক নিয়ে বাবান ঘোষ বলেন, পশ্চিমবঙ্গের শ্রমিকরা আজ সমস্ত সুবিধা থেকে বঞ্চিত। ২০২১– এ রাজ্যে বিজেপি সরকার গঠন হওয়ার পর শ্রমিক কল্যাণে কেন্দ্রের সমস্ত যোজনা পশ্চিমবঙ্গে আমরা লাগু করব। সংগঠনের তরফ থেকে রাজ্য সম্পাদক অনুপ পান্ডা বলেন, শাসকদল পরিচালিত শ্রমিক সংগঠনের দ্বারা শ্রমিকরা বর্তমানে অত্যাচারিত। তাই বিকল্প হিসাবে ভারতীয় জনতা মজদুর ট্রেড ইউনিয়ন’কে বেছে নিয়েছে রাজ্যের বেশিরভাগ শ্রমিক। আমাদের শ্রমিক সংযোজন সপ্তাহ চালু হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের প্রত্যেকটি জেলা থেকে শ্রমিকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে সংগঠনের সাথে যুক্ত হচ্ছে বলে জানান তিনি। কেন্দ্রের সবুজ সংকেত পাবার পরেই এবার রাজ্যে শ্রমিকদের নিয়ে আন্দোলনের ঝাঁজ বাড়াবেন বাবান ঘোষের মতো শ্রমিক নেতারা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here