বনধকে কেন্দ্র করে বিক্ষিপ্ত অশান্তি বর্ধমানে, এসএফআই জেলা সম্পাদককে মাটিতে ফেলে মারধর

আমাদের ভারত, বর্ধমান, ৮ জানুয়ারি: বনধকে কেন্দ্র করে বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনা ঘটলো পূর্ব বর্ধমান জেলায়। তবে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। সকাল থেকেই বনধকে সফল করতে পথে নামে সিপিএম। বেলা বাড়লে দোকান পাঠ খুলতে শুরু করলেও দূরপাল্লার বাস সেভাবে পথে নামেনি। ফলে দুর্ভোগে পড়েন নিত্যযাত্রীরা। মেমারি, পূর্বস্থলী সহ বেশ কিছু জায়গায় রেল অবরোধ করে সিপিএম। ফলে বর্ধমান–হাওড়া মেইন লাইন ও কাটোয়া–ব্যান্ডেল শাখায় ট্রেন চলাচল ব্যহত হয়।

সিপিএমের বর্ধমান শহরের জেলা অফিস থেকে বনধের সমর্থনে মিছিল বের করে। পারকাস রোড এলাকায় জিটি রোডের উপরে রাস্তা অবরোধ করে। ঘটনার জেরে মিনিট পনের যান চলাচল বন্ধ ছিল। রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বর্ধমান পুরসভার সামনে সিপিএমের সমর্থকেরা বনধের সমর্থনে হাজির হলে বর্ধমান থানার পুলিশ তাদের হটিয়ে দিতে যায়। সেই সময় বনধ সমর্থকদের সঙ্গে হাতাহাতি বেধে যায়। পরে সেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের একটা মিছিল গেলে ফের উত্তেজনা ছড়ায়।
পরে মিছিল থেকে শহরের একটা পেট্রোল পাম্পে হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে। পাম্পের জিনিসপত্র ভাঙ্গচুর করে বাম সমর্থকেরা বলে অভিযোগ।

এদিকে বর্ধমান শহরের মিউনিসিপ্যাল বয়েজ হাইস্কুলের সামনে এস এফ ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে ঢুকতে বাধা দিলে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা প্রতিবাদ করে। এস এফ আইয়ের জেলা সম্পাদককে মাটিতে ফেলে মারধর করার অভিযোগ ওঠে। বর্ধমান থানার পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১৬ জনকে আটক করে। নতুন করে যাতে কোন উত্তেজনা না ছড়ায় শহর জুড়ে বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here