বাংলাদেশী তরুণীকে নবদ্বীপ থেকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া, ১০ মে:
লকডাউনে এক বাংলাদেশি তরুণীকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। গতকাল সন্ধ্যায় নবদ্বীপ ধাম রেল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় এক যুবক-যুবতীকে সন্দেহ জনক ভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপর নবদ্বীপ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের থানায় নিয়ে যায়। ধৃত ওই যুবক যুবতীর নাম স্বপ্না রাজবংশী ও রাকেশ মণ্ডল।

জানা যায়, রাকেশ মণ্ডল ওলা মোটরসাইকেলের বেসরকারি একটি পরিবহন সংস্থার কর্মী। বাড়ি বর্ধমানের কালনা গেট এলাকায়। রাকেশ জানায়, এদিন নবদ্বীপ ধাম যাওয়ার কথা বলে ২৬ বছর বয়সী স্বপ্না রাজবংশী দুর্গাপুর থেকে ওলা সার্ভিস করে রাকেশকে বুকিং করে। সেইমতো বর্ধমান থেকে নবদ্বীপ ধাম ৯০০ টাকা ভাড়া চুক্তি হয়। পথে নবদ্বীপে তার দাদার সাথে দেখা করে রাকেশকে তার ভাড়া মিটিয়ে দেবে বলে রাকেশের বাইকে করে আনুমানিক বেলা বারোটা নাগাদ নবদ্বীপে আসে স্বপ্না। এরপর থেকেই রাকেশকে তার পারিশ্রমিক দিতে অস্বীকার করে ওই যুবতী। এমনকি রাত পর্যন্ত ওই যুবতীর দাদা নবদ্বীপে আসেনি বলে জানা যায়।

পরে স্বপ্নার সাথে কথা বলে নবদ্বীপ থানার পুলিশ জানতে পারে যে, তার বাড়ি বাংলাদেশের যশোর জেলার অন্তর্গত সাতানতলা থানার হাবুল্লালক্ষীপুর বাগিরপাড়া এলাকায়। আজ দুপুরে পুলিশ লকডাউন ভাঙার অভিযোগে ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট আইন সহ ভারতীয় অভিবাসন আইনের ১৪ নম্বর ধারায় মামলা রুজু করে অভিযুক্ত ওই যুবতীকে নবদ্বীপ আদালতে পেশ করে, এবং ঐ ওলা চালকের বিরুদ্ধে ১৮৮ আইপিসি, ৫১ বি ধারায় মামলা রুজু করা হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here