বাংলাদেশি জলদস্যু গ্রেফতার, ধৃত আরও দুই

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ২২ জুলাই: গোপন সুত্রে খবর পেয়ে এক বাংলাদেশি জলদস্যুকে গ্রেফতার করল সোনারপুর থানার পুলিশ। ধৃতের নাম আশারফ সর্দার ওরফে জিয়া গাজী। তার বাড়ি বাংলাদেশের সাতখিরায়। তিন বছর আগে এদেশে আসে সে। বিনা পাসপোর্টে এদেশে এলেও নিজের যাবতীয় ভারতীয় পরিচয় পত্র বানিয়ে নিয়েছিল সে। তার কাছ থেকে বেশ কিছু বাংলাদেশি টাকা উদ্ধার করে সোনারপুর থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রের খবর, বাংলাদেশে দস্যুগিরি করে এদেশে পালিয়ে এসেছিল সে। আশারফ সর্দারকে গ্রেফতার করে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের পর আরও বড় সাফল্য পেল সোনারপুর থানার পুলিশ। আশারফকে ভুয়ো আঁধার কার্ড, ভোটার কার্ড ও প্যান কার্ড তৈরি করে দেওয়ার ঘটনায় আরও দুজনকে গ্রেফতার করে সোনারপুর থানার পুলিশ। ধৃতরা হল মুজিবর লস্কর ও কুমারেশ মহাজন। মুজিবর চাকলা কুস্তিয়ার বাসিন্দা অন্যদিকে কুমারেশের বাড়ি চম্পাহাটি এলাকায়। তল্লাশি চালিয়ে এদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে দুটি কম্পিউটার, ২টি প্রিন্টার, বায়োমেট্রিক মেশিন। এরা আঁধার কার্ড বানাতো বলে অভিযোগ। এদের সাথে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা বা কোনও চক্র কাজ করছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জেনেছে সোনারপুরের প্রসাদপুর এলাকায় মুজিবের একটা সাইবার ক্যাফে আছে। সেখানেই কুমারেশ এই চক্র চালাত। এর আগে এইভাবে বহুজনকে তারা ভুয়ো পরিচয় পত্র, প্যানকার্ড তৈরি করেছে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নিয়ে এ বিষয়ে আরও তদন্ত করতে চায় সোনারপুর থানার পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here