নথি জাল করে ভারতে এসে পাসপোর্ট তৈরি বাংলাদেশির, চার বছরের জেল হেফাজতের নির্দেশ বালুরঘাট জেলা আদালতের

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ২৩ ডিসেম্বর: জাল নথি দিয়ে পাসপোর্ট বানানোর অভিযোগে এক বাংলাদেশিকে চার বছরের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত। জরিমানা করা হল দশ হাজার টাকাও। সোমবার বালুরঘাট জেলা আদালতের ফার্স্ট ট্রাক কোর্টে ফরেনারর্স অ্যাক্টে রায় শুনিয়েছেন বিচারক। দোষী সাব্যস্ত রোহুল আমিনকে কারাদন্ডের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানাও ধার্য করেছেন বিচারক। অনাদায়ে আরও ৬ মাসের জেল হেফাজতেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আদালত সূত্রের খবর, দালালের হাত ধরে পাসপোর্ট নিয়ে ২০১৮ সালের ২৭শে জানুয়ারি হিলি থেকে বাংলাদেশ যাচ্ছিল রোহুল আমিন। সেই সময় সন্দেহ বশত বিএসএফ জওয়ানরা তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। ঘটনায় সামনে আসে বাংলাদেশের বগুড়ার ওই বাসিন্দা নকল নথি দিয়ে পাসপোর্ট বানিয়েছে। যার পরেই বিএসএফ তাকে আটক করে হিলি পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া দালাল ভানু দাসকে বেকসুর খালাস করে আদালত। বাংলাদেশি বাসিন্দা রোহুল আমিনের বিরুদ্ধে চলতি বছরের ২৯শে মার্চ চার্জশিট জমা করে হিলি পুলিশ। এদিন সেই মামলারই নিষ্পত্তি হয়েছে বালুরঘাট জেলা আদালতে।

বালুরঘাট জেলা আদালতের সরকারি আইনজীবী ঋতব্রত চক্রবর্তি জানিয়েছেন, নকল নথি দিয়ে পাসপোর্ট বানিয়ে বাংলাদেশে যাবার সময় বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে রোহুল আমিন। বাংলাদেশের বগুড়া জেলার বাসিন্দা হলেও জাল নথি দিয়ে এখানকার বাসিন্দা পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট তৈরি করছিল সে। এদিন সেই ঘটনায় বিচারক তাকে ৪ বছরের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। করেছেন দশ হাজার টাকা জরিমানাও, অনাদায়ে আরো ছমাস কারাবাসের কথাও জানিয়েছেন বিচারক।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here