বিজেপি তৃণমূল সংঘর্ষে রণক্ষেত্র চুঁচুড়া

আমাদের ভারত, হুগলি, ৫ অগষ্ট : শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতি নিয়ে বিজেপির প্রতিবাদ মিছিলকে ঘিরে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তেজনা ছড়াল। শুক্রবার সন্ধ্যেয় দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে চুঁচুড়া থানার খাদিনামোড় সহ একাধিক এলাকায়।

এরপরেই শাসক ও বিরোধীদের অভিযোগ পালটা অভিযোগে চুঁচুড়া শহরে রাত পর্যন্ত রাজনৈতিক অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে সন্ধ্যে থেকে রাত পর্যন্ত পুলিশ মোতায়েন হয়েছে খাদিনামোড় ও শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায়।

তৃণমূলের অভিযোগ, এদিন বিকেলে বিধানসভা থেকে চুঁচুড়া স্টেশন রোড ধরে খাদিনা মোড়ের দিকে ফিরছিলেন চুঁচুড়ার তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদার। ওই সময় বিজেপির সহ সভাপতি রাজীব নাথের নেতৃত্বে একটি মিছিল খাদিনা মোড় থেকে চুঁচুড়ার দিকে যাচ্ছিল। সেই সময় মিছিল থেকে চোরেদের সরকার স্লোগান দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তাই নিয়েই গন্ডগোল শুরু হয়।

বিজেপির অভিযোগ, বিধায়ক গাড়ি থেকে রাস্তায় নেমে বিজেপির ঝান্ডা কেড়ে নিয়ে সেই ডান্ডা দিয়ে বিজেপির সহ সভাপতি রাজীব নাথকে মেরেছেন। এরপর যে টোটো থেকে বিজেপি প্রচার করছিল তার উপর চড়াও হয়ে সেখানে বিজেপি কর্মীকে ঘুসি মারেন। এরপর রাজীব নাথের বাড়িতে হামলা চালানো হয় ও তার মোবাইল ফোন কেড়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন বিজেপির হুগলি সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তুষার মজুমদার। পুলিশ কয়েকজন বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করে। প্রতিবাদে বিজেপি কর্মীরা থানায় অবস্থান বিক্ষোভ করে।

তুষার মজুমদার বলেন, বিজেপির কর্মীদের পুলিশ অন্যায় ভাবে গ্রেপ্তার করেছে। আমরা কর্মীদের বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যাব।বিধায়কের গ্রেপ্তারির দাবিতে অবস্থান বিক্ষোভ করেছি।

বিজেপির অভিযোগ উড়িয়ে অসিত মজুমদারের পালটা অভিযোগ, বিজেপি পরিকল্পিত ভাবে আমার গাড়ির উপর হামলা করেছে। আমি গাড়ি থেকে নামতেই আমায় ধাক্কা মেরেছে। মঙ্গল চট্টোপাধ্যায় আমার উপর হামলা করেছে। আমরা পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছি। সব মিলিয়ে রাতেও পর্যন্ত চুঁচুড়া শহর থমথমে।

বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার মজুমদার এই ঘটনার তীব্র নিন্দা কিরে বলেছেন, গণতন্ত্রের লজ্জা তৃণমূল। হুগলী জেলার চুঁচুড়ায় বিজেপির মিছিলের ওপর তৃণমূল বিধায়ক অসিত মজুমদারের এই হামলার ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়। তৃণমূল চুরির দায়ে রাজনৈতিকভাবে কোণঠাসা হয়ে এখন পেশীশক্তি দিয়ে বিরোধী কণ্ঠরোধ করতে চাইছে। চোরকে চোর বলা কি অন্যায়?

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here