মোহন ভাগবতের রাজ্য সফরের আগে দিলীপ ঘোষ’কে ডেকে কড়া বার্তা সংঘের

নীল বনিক, কলকাতা, ১৯ সেপ্টেম্বর: সংঘ প্রধান মোহন ভাগবতের রাজ্য সফরের আগে দিলীপ ঘোষ ও তাঁর অনুগামীদের কড়া বার্তা সংঘের। কেশব ভবন সূত্রের খবর চলতি মাসে কলকাতায় বিজেপির রাজ্য সভাপতির সঙ্গে বৈঠক করেন সংঘের অখিল ভারতীয় কার্যকর্তা ভাগাইয়াজি। সংঘের গুরুত্বপূর্ণ কার্যকর্তা ভাগাইয়াজি দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে কিছুটা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন বলে সূত্রের খবর।

বিভিন্ন সময় দিলীপ ঘোষের আলটপকা মন্তব্যে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায় রাজ্যজুড়ে। সংঘ কার্যকর্তারা অস্বস্তিতে পড়েন। কারণ দিলীপ ঘোষ শুধু বিজেপি নেতা নন, তিনি আরএসএসের একজন প্রচারক। এই প্রচারকদের একটু অন্যচোখেই দেখে সাধারণ মানুষ। কিন্তু দিলীপ ঘোষ মাঝে মাঝে যেসব কথা বলেন তা একজন সংঘ প্রচারকের মুখে মানায় না বলে সংঘের বিভিন্ন মহলে সমালোচনা হয়। এমনকি সংঘের সদরদফতর কেশব ভবন ছাড়িয়ে জেলার বিভিন্ন কার্যকর্তা এবং স্বয়ংসেবকরাও অসন্তোষ প্রকাশ করেন। কিন্তু দিলীপ ঘোষের কোনও পরিবর্তন নেই। সম্প্রতি অন্তত দু’বার বলেছেন, তৃণমূলের বুকে পা–দিয়ে রাজনীতি করতে এসেছি আমি। এছাড়া তিনি এমন কথাও বলেছেন যে, তিনি একাই বিজেপিকে ক্ষমতায় নিয়ে আসবেন। তাঁর এই “ঔদ্ধত্যপূর্ণ কথায় বিজেপির মধ্যেও তীব্র অসন্তোষ ছড়িয়েছে। লাগাতার দিলীপ ঘোষের এমন কিছু মন্তব্যে খুশি হতে পারেননি সংঘের শীর্ষস্তরের নেতারা।

দিলীপ ঘোষকে লাগাম পরাতে তাই গত ৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সংঘের সহ সরকার্যবাহ ভাগাইয়াজি, যাঁর কেন্দ্র কলকাতা, তিনি দিলীপ ঘোষ’কে ডেকে পাঠান। বৈঠকে সংঘের অসন্তোষের কথা তাঁকে বুঝিয়ে দিয়েছেন ভাগাইয়াজি। দিলীপ ঘোষ’কে যথেষ্ট সংযত হতে বলা হয়েছে। এছাড়া তাঁর চালচলন এবং জীবনযাত্রায় যে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে সেই দিকটাও বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে সংঘের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর। এই প্রসঙ্গে ভাগাইয়াজি নরেন্দ্র মোদী সহ বেশকিছু নেতার জীবনযাত্রা নিয়ে আলোচনা করেন, যাদের সংঘ থেকে বিজেপিতে দেওয়া হয়েছে। নরেন্দ্র মোদী যখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, সেই সময় তাঁর জীবনযাত্রা কেমন ছিল তা দিলীপ ঘোষকে জানানো হয়। বর্তমানে তিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী, তাই তাঁকে অনেক বাধ্যবাধকতার মধ্য দিয়ে চলতে হয়। কিন্তু তা সত্বেও তিনি তাঁর জীবনধারা অপরিবর্তিত রেখেছেন।
এছাড়া রাজ্য বিজেপিতে গোষ্ঠীকোন্দল নিয়েও দিলীপ ঘোষকে বার্তা দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

চলতি মাসেই রাজ্যে আসছেন সংঘ প্রধান মোহন ভাগবত।
আগামী ২২ সেপ্টেম্বর কলকাতায় আসছেন তিনি। ২৩ সেপ্টেম্বর একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করবেন সংঘচালক মোহন ভাগবত। তার আগে দিলীপ ঘোষকে সংঘের বার্তা দেওয়া তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। রাজ্য বিজেপির একাংশও এই ঘটনাকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে।
দিলীপ ঘোষ নিজে সংঘের প্রচারক। সেখান থেকে বিজেপিতে এসে রাজ্য সভাপতি। দলে দিলীপ ঘোষের অনুগামীরা মনে করেন সংঘের হাত রয়েছে তাঁর উপর। তাই দিলীপবাবুকে বেকাদায় ফেলা দলের অপর গোষ্ঠীর পক্ষে সম্ভব হবে না। কিন্তুু ভাবমূর্তি উজ্বল না থাকলে সংঘ যে কাউকে বেয়াত করে না সেকথা বৈঠকে দিলীপ ঘোষকে সম্ভবত স্মরন করিয়ে দিয়েছেন ভাগাইয়াজি।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here