ভোটের আগে দক্ষিণবঙ্গের ৫ জেলায় বিশেষ নজর তৃণমূলের

রাজেন রায়, কলকাতা, ১৪ জানুয়ারি: একুশের বিধানসভা ভোটে বিজেপিকে রুখতে রীতিমতো অঙ্ক কষে এগোতে চাইছে শাসক শিবির। আর তার জন্য হাজার বিতর্ক সত্ত্বেও রাজনৈতিক গুরু প্রশান্ত কিশোরের ওপর ভরসা রাখতে চাইছে শাসকদল। পিকের রণকৌশল অনুযায়ী, বাংলায় ক্ষমতা ধরে রাখতে পাঁচ জেলায় বিশেষ নজর দিতে হবে তৃণমূলকে। ওই পাঁচ জেলাতে শাসকদলের চোখ এড়িয়ে রাজনৈতিক জমি শক্ত করেছে বিরোধী রাজনৈতিক দল বিজেপি।

মূলত বেশি সংখ্যক বিধানসভা আসন রয়েছে এমন পাঁচ জেলাকে টার্গেট করেছে ‘টিম তৃণমূল’। এর মধ্যে রয়েছে দুই চব্বিশ পরগনা, মুর্শিদাবাদ, হাওড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর। এছাড়া বিশেষ নজর থাকছে নদিয়াতেও। এই জেলাগুলিতে বিধানসভা আসনের সংখ্যা যথাক্রমে ৩৩, ৩১, ২২, ১৬, ১৯। নদিয়াতে আসন সংখ্যা ১৭।

এই পাঁচ জেলায় বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার বড় কারণই আসনের সংখ্যাধিক্য। বিজেপিকে রুখতে প্রশাসন এবং দলের তরফে একাধিক জনসংযোগ কর্মসূচি নিয়েছে তৃণমূল। পাশাপাশি এই পাঁচ জেলায় শক্তি বাড়াতে নীল নকশা তৈরি করেছেন ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোরও। সূত্রের খবর, এই জেলাগুলিতে টিম পিকে এবং টিম তৃণমূল যৌথভাবে ভোট প্রস্তুতির কৌশল তৈরি করছে।
আর সেক্ষেত্রে প্রথম ধাপই হল জনসংযোগ। স্বাস্থ্যসাথী, দুয়ারে সরকার, পাড়ায় সমাধান প্রকল্পকে সামনে রেখে ইতিমধ্যেই ‘ডোর টু ডোর’ ক্যাম্পেনে শামিল হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিশেষত পঞ্চায়েত এবং পুরসভার সদস্যদের এই কাজের নির্দেশ দিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। সূত্রের খবর, সরকারি ক্যাম্পগুলিকেও সফল করতে দলের কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতি ব্লকে ১৫টি করে জনসভা করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here