বাংলা ও কেরলেই সবথেকে বেশি উগ্রপন্থীদের কার্যকলাপ চলছে, দাবি দিলীপ ঘোষের

নীল বনিক, আমাদের ভারত, কলকাতা, ১৯ সেপ্টেম্বর: সবথেকে বেশি বাংলা ও কেরলেই উগ্রপন্থীরা রয়েছে। শনিবার দিল্লিতে এই ভাষাতেই দুই রাজ্য সরকারকে আক্রমন করলেন বিজেপির রাজ সভাপতি দিলীপ ঘোষ।তিনি বলেন, সংসদে সবথেকে বেশি কেরল ও বাংলার সাংসদরা কেন্দ্রের বিরোধীতা করেন। অথচ বাংলায় ও কেরলে সবথেকে বেশি উগ্রপন্থী ধরা পড়ছে। তার পিছনে অবশ্য কারণ ব্যাক্ষা করেছেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, রাজ্য সরকারগুলির জন্যই এমন ঘটনা ঘটছে। সারা দেশে যখন উগ্রপন্থীদের ডেরা কমছে তখন বাংলায় ও কেরলে তা বাড়ছে। উগ্রপন্থীদের বাংলাদেশ থেকে অবাধ যাতাযাত কমাতে কেন্দ্র সীমান্তে স্থায়ী কাঁটাতার দেবার কথা ভেবেছে। কিন্তু রাজ্য সরকার এখনও পর্যন্ত জমি হস্তান্তর করতে পারেনি। যার ফলে বাংলাদেশ থেকে উগ্রপন্থীরা অবাধে যাতাযাত করতে পারছে বলে অভিযোগ করেন দিলীপ ঘোষ।

মুর্শিদাবাদের ঘটনার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঐ জেলায় কোনও আইনশৃঙ্খলা নেই। প্রতিদিন অশান্তি হয়। সিএএ নিয়ে আন্দোলন করার সময় মুর্শিদাবাদেই সিএএর সমর্থনকারী খুন হয়েছিলেন। এনআইএ গ্রেফতার করেছে তাই উগ্রপন্থীরা ধরা পড়েছে। না হলে রাজ্যের পুলিশ সবটাই সরকারের নির্দেশে চেপে রেখে দিত।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here