মুখ্যমন্ত্রী মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন: ভারতী ঘোষ

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ২১ ডিসেম্বর: বাংলার মুখ্যমন্ত্রী দেশবিরোধী কথাবার্তা বলছেন এবং মানুষকে ভুল পথে পরিচালিত করছেন বলে অভিযোগ করলেন ভারতী ঘোষ। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাষ্ট্রপুঞ্জের তত্ত্বাবধানে গণভোটের দাবি প্রসঙ্গে কড়া প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন  রাষ্ট্রপুঞ্জের প্রাক্তন দাপুটে আধিকারিক তথা রাজ্য বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষ। শনিবার মেদিনীপুর শহরে এসেছিলেন তিনি। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় ভারতী দেবী আগাগোড়া মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করে বলেন, এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পাকিস্তানের ভাষায় কথা বলছেন। তিনশো সত্তর ধারা লাগু করার সময় কাশ্মীর নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জের তত্ত্বাবধানে গণভোটের দাবি তুলেছিল পাকিস্তান। পাকিস্তানের তোলা সেই সুরেই এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী রাষ্ট্রপুঞ্জের তত্ত্বাবধানে গণভোটের দাবি করছেন।  বাংলায় গত কয়েক দিন যেভাবে ট্রেন, বাস, স্টেশন জ্বালিয়ে ভাঙ্গচুর করে তাণ্ডব চালানো হল সেইসব ঘটনায় যুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কেন সুনির্দিষ্ট এফআইআর হয়নি তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন একদা মমতা ঘনিষ্ঠ এই প্রাক্তন আইপিএস।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ভারতী ঘোষ বলেন, দেশের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে সাময়িক ভাবে মানুষকে যতই ভুল বোঝানো হোক, মানুষ তা কিছুদিনের মধ্যেই বুঝে যাবেন। তিনি অভিযোগ করেন, বিরোধীদের স্তব্ধ রেখে মুখ্যমন্ত্রী নিজে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। মিথ্যা তথ্য দিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন। বিজেপি নেতারা কোথাও যেতে পারছে না তাদের মিটিং-মিছিল করতে দেওয়া হচ্ছে না। সাংসদদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়কেও আটকে দেওয়া হচ্ছে। সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলতে দেওয়া হচ্ছে না। ইন্টারনেট বন্ধ করে দিচ্ছে এই সরকার। আসলে একুশ সালে চলে যাবে বলে ভয় পেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এসব করে বেড়াচ্ছেন বলে মন্তব্য করেন পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here