আগ্রাসী চিন! লাদাখ সহ দেশের সীমান্তে নজরদারি চালাবে বিশেষ ড্রোন “ভারত”

আমাদের ভারত ভ্রমন,২২ জুলাই: দেশের নিরাপত্তার দায়িত্ব এবার “ভারতে”র হাতে। হ্যাঁ ভারতীয় সেনার হাতে ডিআরডিও “ভারত” নামে একটি বিশেষ ড্রোন তুলে দিলো। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি ড্রোনটি উঁচু পাহাড়ে ঘেরা এলাকায় বিশেষভাবে নজরদারি চালাতে দক্ষ। এলএসি বরাবর নজরদারি চালাবে “ভারত”।

এই ড্রোনটি বিশ্বের সবচেয়ে হালকা ও সহজে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে যেতে পারা ড্রোন গুলির অন্যতম। উঁচু পাহাড়ি এলাকায় অত্যন্ত নিখুঁতভাবে নজরদারি চালাতে সক্ষম এই ড্রোনটি। লাদাখে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হবার পর থেকেই নজরদারি চালাতে ভারতীয় সেনার এমন একটি ড্রোনের অত্যন্ত প্রয়োজন ছিল। যা কিনা খুব সহজে নিখুঁতভাবে নজরদারির কাজ করতে পারে।

ডিআরডিও তৈরি এই ড্রোন সেই কাজ করবে বলে খবর প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে। চন্ডিগড়ের একটি পরীক্ষাগারে এই “ভারত” সিরিজে ড্রোন গুলি তৈরি হয়েছে।

ছোট কিন্তু অত্যন্ত শক্তিশালী এই ড্রোন স্বয়ংক্রিয়ভাবে যেকোনো লোকেশনে গিয়ে নিখুঁতভাবে কাজ করতে পারে। এর বায়োমেট্রিক ডিজাইন এবং অ্যাডভান্স রিলিজ টেকনোলজি নজরদারি কাজে উপযুক্ত। ভারতে্য আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বন্ধু শত্রুর মধ্যে পার্থক্য করতে পারবে এটি। শত্রুকে চিনে নিয়ে সেটা বুঝে তার পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করতে পারে এই ড্রোন।

চূড়ান্ত শীতল আবহাওয়াতেও কাজ করতে সক্ষম এটি।নজরদারি চালানোর সময় রিয়েল টাইম ভিডিও পাঠাবে “ভারত”। রাতের অন্ধকারে ছবি তুলতে পারবে সে। এমনকি গভীর জঙ্গলেও যদি কিছু লুকানো থাকে তাও চিহ্নিত করতে পারবে এই ড্রোনটি। এছাড়া,কোনো র্যাডারে এটি ধরা পড়বে না। ফলে সেনার একাধিক মিশনে “ভারত” উল্লেখ যোগ্য ভূমিকা গ্রহণ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here