রাজ্যে করোনা টেস্ট নিয়ে ভারতী ঘোষের অভিযোগ

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ১৭ এপ্রিল: এ রাজ্যে করোনা টেস্ট ঠিকমতো হচ্ছে না বলে অভিযোগ করলেন রাজ্য বিজেপির সহ-সভাপতি ভারতী ঘোষ। শুক্রবার মেদিনীপুরে তিনি বলেন, নাইশেড জানিয়েছে এই রাজ্যে সাতাশ হাজার পাঁচশো টেস্ট কিট থাকলেও তা করোনা নির্ধারণে ঠিকমতো ব্যবহার করা হচ্ছে না। আগে যেখানে প্রতিদিন আশি নব্বই জনের টেস্ট হতো এখন সেখানে নয় থেকে দশ জনের পরীক্ষা করা হচ্ছে। প্রতিদিন সারা দেশে যেখানে ত্রিশ হাজারের মতো টেস্ট করা হচ্ছে সেখানে পশ্চিমবঙ্গের সংখ্যাটা একেবারে নগণ্য।

ভারতী ঘোষ বলেন, এখনো পর্যন্ত সারাদেশে এক লক্ষ  ঊনআশি হাজার তিনশ চুয়াত্তর জনের টেস্ট হয়েছে। আর এই রাজ্যে প্রতি দশজন  সন্দেহভাজনের মধ্যে দুজনের টেস্ট করা হচ্ছে, বাকিদের ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তারা গিয়ে তাদের পরিবার পাড়া এবং অঞ্চলকে আক্রান্ত করে আক্রান্তের সংখ্যা দিনের পর দিন বাড়িয়ে দিচ্ছে। যথেষ্ট টেস্ট কিট থাকা সত্ত্বেও এ রাজ্যে তাদের টেস্ট করা হচ্ছে না। তিনি অভিযোগ করেন, সাতাশ হাজার পাঁচশো টেস্ট কিট ব্যবহারই করা হয়নি। কারণ স্বাস্থ্য দপ্তরকে নির্দেশই দেওয়া হয়েছে সবাইকে টেস্ট না করার। এ রাজ্যের বর্তমান অবস্থাটা এরকমই। রাজস্থান মধ্যপ্রদেশ উত্তরপ্রদেশ মহারাষ্ট্র কেরালা সহ দেশের দশটি রাজ্য ভালো টেস্ট করেছে। সেখানে পশ্চিমবঙ্গের নাম নেই। এখানে পরীক্ষাই করা হচ্ছে না।

ভারতী ঘোষ বলেন, এ রাজ্যে যেসব চিকিৎসক আক্রান্তদের চিকিৎসা করছেন তাদের নির্দেশ দেওয়া আছে আপনারা মৃত্যুর সার্টিফিকেট দেবেন না। স্বাস্থ্য দপ্তরের এক্সপার্ট কমিটি সেই সার্টিফিকেট দেবে। ভারতী ঘোষ এখানে প্রশ্ন তোলেন, যে চিকিৎসক চিকিৎসা করতে পারে তিনি সার্টিফিকেট দিতে পারবেন না কেন? এক্সপার্ট কমিটির সদস্যরা যারা চিকিৎসাই করলেন না ল, রোগীকে দেখলেনই না তারা সার্টিফিকেট দেবে কেন?  তাহলে চিকিৎসকদের কি যোগ্যতাই নেই এই প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী এরাজ্যে করোনা ক্রাইসিসকে করোনা কলঙ্কিত করছেন। তিনি বলেন, মৃতদের যেসব ডোমরা শ্মশানে নিয়ে যাচ্ছে তাদের কোনও রকম সুরক্ষা দেওয়া হচ্ছে না। তাদের থেকে তো আরো ছড়িয়ে পড়বে সংক্রমণ।

ভারতী ঘোষ বলেন, মুখ্যমন্ত্রী এসব কি শুরু করেছেন? প্রকৃত তথ্য দেওয়ার ক্ষেত্রেও তিনি কারচুপি করছেন। প্রকৃত তথ্য লুকিয়ে তিনি বাংলার মানুষের সর্বনাশ করছেন। বৃহত্তর কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় লকডাউন যেভাবে ভাঙা হচ্ছে এবং কিট ব্যবহার না করে বাংলাকে যেভাবে সর্বনাশের মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে এজন্য মুখ্যমন্ত্রীকে বাংলার মানুষ ক্ষমা করবেন না। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে আবেদনের সুরে ভারতী দেবী বলেন, সঠিকভাবে করোনা সন্দেহভাজনদের টেস্ট করার ব্যবস্থা করুন। যেসব টেস্টিং কিট পড়ে রয়েছে সেগুলো ব্যবহার করে রাজ্যের মানুষকে সুরক্ষিত করুন। এদিন তিনি রাজ্যবাসীকে লকডাউন মেনে বাড়িতে থেকে নিজেদের  সুরক্ষিত রাখার অনুরোধ করেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here