এনআরসি ইস্যুতে বালুরঘাটে তৃণমূলের পাল্টা প্রচার বিজেপির, পোস্টকার্ডে বাসিন্দারা লিখলো নেতাদের দুর্নীতির কাহিনী

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ১৮ নভেম্বর: এনআরসি ইস্যুতে এবারে তৃণমূলের পাল্টা প্রচারে পোস্টকার্ড নিয়ে বালুরঘাটে মাঠে নামলো বিজেপি। শাসক দলের লাগামহীন দুর্নীতির কথা প্রধানমন্ত্রীকে লিখলেন বাসিন্দারা। রবিবার থেকে বালুরঘাট শহরে শুরু হওয়া বিজেপির এই অভিযানে বাসিন্দাদের দুর্নীতি নিয়ে ক্ষুব্ধ শাসক বিরোধী মন্তব্যে প্রচারে বেরোনো নেতা কর্মীরা বাড়তি অক্সিজেন পাচ্ছে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

পুরসভা ভোটকে সামনে রেখে ময়দান দখলে বালুরঘাট শহরে অনেক আগেই নেমে পড়েছে শাসক শিবির। লোকসভা ভোটের হারানো মাটি ফিরে পেতে মরিয়া তৃণমূল কংগ্রেস এনআরসি ইস্যু নিয়ে মাঠে নেমেছে শহর জুড়েই। এদিকে এনআরসি নিয়ে তৃণমূল সাধারণ মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে এমন অভিযোগ তুলে রবিবার থেকে পাল্টা প্রচারে শহরে নেমেছে বিজেপিও। প্রতিটি ওয়ার্ডে বাড়ি বাড়ি গিয়ে এনআরসির সঠিক ব্যাখ্যা তুলে ধরার পাশাপাশি বাসিন্দাদের হাতে একটি করে পোস্টকার্ডও তুলে দিচ্ছেন তারা। যেখানেই সাধারণ মানুষকে তাদের অভাব অভিযোগের কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানাবার জন্য লিখতেও অনুরোধ করছেন কর্মীরা। বাসিন্দাদের পোস্টকার্ডে সেই লেখা দেখতেই যেন কিছুটা অবাক হয়ে যাচ্ছেন বিজেপির নেতা কর্মীরা। বিজেপির দাবি, বাসিন্দারা সেখানে তুলে ধরছেন শহর জুড়ে শাসক দলের লাগামহীন দুর্নীতির চিত্র।

রবিবার শহরের ৯ নং ওয়ার্ডে বেড়িয়ে বাসিন্দাদের কাছ থেকে এমনই বেশকিছু অভিযোগ পেয়েছে বলে দাবি বিজেপির। তাদের দাবি বাসিন্দারা লিখেছেন, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ঘরের টাকা বিলিতে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে কাটমানি খেয়েছেন শাসক দলের নেতা কর্মীরা। একই ভাবে প্রকৃত গরীবদের বঞ্চিত করে বড় অট্টালিকায় বসবাসকারীরাও পেয়েছে ঘর। শুধু তাই নয়, শৌচালয় তৈরীর নামে টাকা তুলেছে তৃণমূল নেতারা, যারও কোন কাজ হয়নি।

বালুরঘাট শহর মন্ডলের বিজেপি সভাপতি সুমন বর্মন বলেন, সামনে পৌরসভা নির্বাচনে নিজেদের বৈতরণী পার করতে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে শাসকদল। এনআরসি নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। যার থেকে বাঁচাতেই তাঁদের এই প্রচারাভিযান। যেখানেই সামনে এসেছে শাসক দলের লাগামহীন দুর্নীতির চিত্র। পোস্টকার্ডে লেখা বাসিন্দাদের এইসব সমস্যা তারা পাঠাবেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। আগামীতে শহরের প্রতিটি ওয়ার্ডেই তাঁদের এই প্রচার চলবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here