হাবড়ায় এক আদিবাসী গৃহবধূরকে ধর্ষণের প্রতিবাদে থানা ঘেরাও করে স্মারকলিপি বিজেপির

আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ৪ অক্টোবর:
উত্তরপ্রদেশের ধর্ষণের ঘটনাকে ঘিরে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে ময়দানে নেমেছে তৃণমূল। অথচ নিজের রাজ্যে প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও অসহায় মহিলারা ধর্ষণ হচ্ছে, খুন হচ্ছে সে নিয়ে কোনও পদক্ষেপ নেই রাজ্য সরকার থেকে প্রশাসনের।

উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়া থানার ইছাপুরের একটি ইটভাটার কর্মী এক আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় ভোলা ওড়াং নামে এক যুবককে। রবিবার সকালে তার কঠোরতম শাস্তির দাবি জানিয়ে হাবরা থানা ঘেরাও করে স্মারকলিপি জমা দেয় হাবরার ভারতীয় জনতা পার্টির কর্মী ও সমর্থকরা। তাদের দাবি, হাবরার বিভিন্ন জায়গায় যে ধর্ষণের মতো ঘটনা ঘটছে সেই সমস্ত দোষীদের গ্রেফতার করতে হবে। এছাড়াও এ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মহিলাদের উপর দিনের পর দিন যে অত্যাচারের ঘটনা ঘটে চলেছে অবিলম্বে দোষীদের শাস্তি দিতে হবে।

হাবরার বিধানসভার বিজেপির কনভেনার প্রদীপ চট্টোপাধ্যায় বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একজন মহিলা, তাঁর রাজ্যে একাধিক ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। তারই প্রতিবাদে এদিন হাবরা থানায় ডেপুটেশন দিল ভারতীয় জনতা পার্টি। হাবরা থানা চত্বরে আগে থেকেই পুলিশ ও রাফ মোতায়েন করা হয়।

অন্যদিকে অশোকনগর বৈশাখী উৎসব কমিটি’র পক্ষ থেকে গোটা দেশে যেভাবে নারীরা নির্যাতিত হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে অশোকনগর ৩ নং রেলগেট মুখে, অশোকনগর ২ নং রেল স্টেশন, আশ্রাফাবাদ কালি মন্দির ও লেকপাড়। চারটি এলাকায় মানববন্ধনের মধ্য দিয়ে নারীদের নিরাপত্তা ও নারীদের সুরক্ষা নিয়ে প্রতিবাদ জানানো হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here