স্বজনপোষণ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ৭ দফা দাবি নিয়ে অশোকনগর ভূরকুণ্ড পঞ্চায়েতে বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি বিজেপির

সুশান্ত ঘোষ, উত্তর ২৪ পরগণা, ১৩ অক্টোবর: আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকা নিয়ে দুর্নীতি।
১০০ দিনের কাজের টাকা থেকে 
কাটমানি।বৃদ্ধ ভাতা থেকে প্রচুর অসহায়গরিব মানুষদের বঞ্চিত করা সহ সাত দফা দাবি নিয়ে মঙ্গলবার উত্তর ২৪
পরগনার অশোকনগর ভূরকুণ্ড পঞ্চায়েত ঘেরাও করে 
বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। পরে পঞ্চায়েত প্রধানের 
কাছে স্মারকলিপি জমা দেয়। বিজেপির অভিযোগ, ওই
পঞ্চায়েত সদস্য দুর্নীতিতে জড়িত। আমফানের প্রকৃত 
ক্ষতিগ্রস্থরা সরকারি টাকা পাননি।যাদের পাকা বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি এমন অনেকে সরকারি টাকা পেয়েছেন।ক্ষতিগ্রস্ত না হয়েও টাকা পাওয়ার তালিকায় রয়েছেন শাসক দলের নেতানেত্রী, 
পঞ্চায়েত সদস্য বা তাদের আত্মীয়স্বজন।সরকারি কর্মীরাও টাকা পেয়েছেন বলে অভিযোগ। 

বিজেপি নেতা শ্যামল সরকার বলেন, তৃণমূল 
পরিচালিত ভূরকুণ্ড পঞ্চায়েতের প্রধান থেকে 
সদস্যরা আমফানের টাকা ।নিয়ে দুর্নীতি করেছে।দলাবাজি করে নিজেদের কর্মী সমর্থকদের সরকারি
টাকা পাইয়ে দিয়েছে।এছাড়া ১০০ দিনের কাজের টাকা, বৃদ্ধ ভাতার টাকা,
কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্প আয়ুস্মান ভারত লাগু না
করে সাধারণ মানুষকে বঞ্চিত করা হয়েছে।এছাড়া প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা, পানীয় জল স্বাস্থ্য 
পরিষেবা থেকে বঞ্চিত ভুরকূন্ডার এলাকাবাসীরা।এইসব দুর্নীতির প্রতিবাদে অশোকনগর ভূরকুন্ড
পঞ্চায়েত ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে ডেপুটেশন জমা দেয় বিজেপির কর্মীরা। 

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে  ভূরকুণ্ড পঞ্চায়েতের 
প্রধান বৃন্দাবন ঘোষ বলেন, যদি কেউ আমফান ঝড়ের টাকা না পেয়ে থাকেন পঞ্চায়েতে এসে আবেদন করবেন আমরা চিন্তা ভাবনা করে দেখব। বাকি অভিযোগ গুরুত্ব হীন বলে মনে করেন তিনি।  


 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here