পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন  সীমান্তে যতরকম পাচার  হয় তার সঙ্গে যুক্ত খাদ্যমন্ত্রী, বললেন  বিজেপির জেলা সভাপতি শংকর চট্টোপাধ্যায়

সুশান্ত ঘোষ, আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ২ ডিসেম্বর: পশ্চিমবঙ্গে যতরকম পাচার 
হয় তার সঙ্গে যুক্ত এই রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয়
মল্লিক। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার 
হাবড়া থানার হাবড়া শহরে 
বিজেপির জনসংযোগ যাত্রায় এসে এমন ভাবেই জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে আক্রমন 
করলেন বিজেপির জেলা 
সভাপতি শংকর চট্টোপাধ্যায়।সম্প্রতি বামনগাছিতে একটি তৃণমূলের সভায় জ্যোতিপ্রিয়মল্লিক বলেন, বাগদার 
বিধায়ক দুলাল বর একজন গোরু পাচারকারি।এই কথার উত্তরে শংকরবাবু বলেন, বিরোধী দলের 
লোকজন এইসব করতে পারে না।কারণ পুলিশ প্রশাসন ও শাসক দলের মদত না 
থাকলে পাচার করা যায় না।
চাল, গরু সহ বিভিন্ন পাচারের সঙ্গে যুক্ত জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এমনই অভিযোগ করেন শংকরবাবু।  

বুধবার উত্তর ২৪ পরগনার হাবরা শহরে 
বিজেপির জনসংযোগ যাত্রায় এসে বিজেপির জেলা সভাপতি 
শংকর চট্টোপাধ্যায় এমনটাই অভিযোগ করেন।এছাড়াও তিনি বলেন, শাসক দলের কর্মীরা সমস্ত দুর্নীতির সঙ্গে
যুক্ত। তাপস পাল একদিন
বলেছিলেন, বাড়ি বাড়ি ছেলে ঢুকিয়ে 
দেওয়ার কথা। আর এখন “দুয়ারে সরকার” প্রকল্প করছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা 
বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন একাধিক বিষয় নিয়ে 
শাসক দলের নেতা কর্মীদের ওপর অভিযোগ
আনেন এই বিজেপি নেতা।

২০২১ বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে
ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক দলগুলি তাদের শক্তি প্রদর্শন
শুরু করে দিয়েছে।জেলার বিভিন্ন জায়গায় একযোগে যেমন চলছে মিছিলপাশাপাশি চলছে জনসভা। বুধবার উত্তর ২৪ পরগনার হাবরা শহরে 
বাইক মিছিলের আয়োজন করে বিজেপি কর্মীরা শক্তি
প্রদর্শন করে দেখাল। এদিন হাবরা চোংদা মোড় 
থেকে শুরু করে বানিপুর  
পর্যন্ত দীর্ঘ ছয় কিলোমিটার রাস্তা বাইক মিছিল হয়।মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন 
বিজেপি জেলা সভাপতি 
শংকর চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও রাজ্যের সহ-সভাপতি রিতেশ তেওয়ারি। এদিন মিছিল থেকে আওয়াজ 
তোলা হয় তৃণমূল সরকারের
বিরুদ্ধে। এছাড়াও লিফলেটের মাধ্যমে তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচার করে বিজেপি সমর্থকরা। যদিও অভিযোগের ভিত্তিতে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিককে ফোন করলে তিনি ফোন তোলেননি।                        
 

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here