“২১ নয় ৪১ জন বিধায়কের নাম রয়েছে বিজেপির কাছে,” সুকান্ত ও মিঠুনের মন্তব্যে নয়া জল্পনা

আমাদের ভারত, ২৮ সেপ্টেম্বর: সরাসরি ২১ জন তৃণমূল বিধায়কের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে, আবারো এমনটাই দাবি করেছেন মিঠুন চক্রবর্তী। অন্যদিকে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে ৪১ জনের নাম আছে বলে বিস্ফোরক দাবি করেছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। আর সুকান্ত- মিঠুনের এই দাবি ঘিরে নয়া জল্পনা এখন তুঙ্গে রাজ্য রাজনীতিতে।

বঙ্গ বিজেপির এবারের পুজোর মুখ মিঠুন চক্রবর্তী। একের পর এক পুজো উদ্বোধন করে চলেছেন তিনি। মঙ্গলবার হুগলিতে তেমনই একটি পুজো উদ্বোধনে গিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অভিনেতা দাবি করেছেন ২১ জন তৃণমূল বিধায়ক তার সাথে সরাসরি যোগাযোগ রেখেছেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, তৃণমূলে এমন কিছু নেতা রয়েছেন যেখানে তাদের দম বন্ধ হয়ে আসছে। তিনি বলেন, সবাই তো সমান নয়। তার মতে চুরি না করেও তাদের গায়ে আঁচ লাগছে। যদিও পুরো বিষয়টি উপরের নেতারা দেখবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এরপরই অভিনেতার কথার মধ্যেই রাজ্য বিজেপি সভাপতি, দাবি করেছেন, “মিঠুনদার কাছে যদি ২১ জনের নাম থাকে, আমাদের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে ৪১ জনের নাম থাকবে কম করে। বেশ কয়েকজন দিল্লির নেতাদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রাখছেন বলে জানিয়েছেন সুকান্ত মজুমদার।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস ধরে একাধিক বিজেপি নেতা দাবি করেছেন ডিসেম্বরের মধ্যেই রাজ্য সরকার পড়ে যাবে। দুর্নীতি মামলায় শাসক দলের নেতা-মন্ত্রীরা ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছেন। আরো বেশ কয়েকজন নেতা গ্রেপ্তার হয়ে জেলে ঢুকবেন। এদিন আরও এক কদম বাড়িয়ে সুকান্ত মজুমদার দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রীও ডিসেম্বরে জেলে যেতে পারেন। ফলে স্বভাবতই তৃণমূল সরকার পড়ে যাবে।

মিঠুন ও সুকান্তর এই দাবি ঘিরে তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য, ইচ্ছাকৃতভাবে বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা চলছে। কিন্তু এর পাল্টায় মিঠুন চক্রবর্তী বলেছেন, “কিছু স্পষ্ট করে বলবো না। সব ধরে ফেলবে। আমি প্রটোকল ছাড়া কাজ করি না। যতটুকু বলার ছিল বলে দিয়েছি। সব কাজ আমি বলেই করি।”

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here