কালী পুজোর পরেই বাংলায় প্রচারে ঝাঁপাচ্ছে বিজেপি, আসছেন অমিত শাহ ও জেপি নাড্ডা

নীল বণিক, আমাদের ভারত, কলকাতা, ২৪ সেপ্টেম্বর: বিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচার জোরদার করতে কালী পুজোর পরেই আসছেন অমিত শাহ ও জেপিন নাড্ডা। করোনা পর্বে বাংলায় তাঁরা একাধিক ভার্চুয়াল জনসভা করেছিলেন। কালীপুজোর পরে আর কোনও ভার্চুয়াল সভা নয় বরং একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা বাংলায় প্রচারে জন্য আসবেন। লক্ষ্য অবশ্যই ২০২১ এর বিধানসভা ভোট। তাই কালী পুজোর পরেই বিজেপি নেতারা একে একে বাংলায় এসে সভা করবেন।

কালীপুজোর পরে জেপি নাড্ডা, অমিত শাহ বাংলায় আসার কথা থাকলেও তাদের আসার আগে থেকেই পুরোপুরি প্রচারের জন্য রাজ্য বিজেপিকে নির্দেশ দিয়েছে দিল্লি। কৃষিবিল নিয়ে প্রচারের জন্য বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব গ্রামীণ বাংলায় প্রচারের জন্য নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য বিজেপিকে। কৃষি বিল নিয়ে ইতিমধ্যেই রাস্তায় নেমে পড়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। জোট ধর্ম মেনে বাম, কংগ্রেস কৃষি বিল দিয়ে একসঙ্গে রাস্তায় আন্দোলন করছে। বিরোধীরা যাতে একতরফা মানুষের মধ্যে না পৌঁছাতে পারে সেই জন্যই এবার দলের সাংসদদের কৃষি বিল নিয়ে মানুষের কাছে পৌঁছানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচার জোরদার করতে অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহতেই নবান্ন ঘেরাও অভিযান কর্মসূচি নিয়েছে যুব মোর্চা। সেই কর্মসূচি সফল করতে ব্যস্ত রাজ্য বিজেপির নেতারাও। নবান্ন ঘেরাও অভিযান কর্মসূচি সফলভাবে শেষ করেই কৃষি বিল নিয়ে পাল্টা তৃণমূলের বিরুদ্ধে প্রচারে নামতে চায় রাজ্য বিজেপি। টানা একমাস দলের সাংসদ বিধায়কদের প্রচার করতে বলা হয়েছে। তারপরেই বাংলায় চলে আসবেন একাধিক কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

বিজেপি সূত্রের খবর দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনাতে প্রথমেই দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের দিয়ে আগামী ২০২১ এর জন্য প্রচার করতে চান বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। তারা মনে করছে আমফানের দুর্নীতি এই জেলাগুলিতে সবথেকে বেশি হয়েছে। তাই এই জেলাগুলিতে জেপি নাড্ডা অমিত শহরে এসে প্রথমে প্রচারের ঝড় তুলবেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here