আরামবাগে বিজেপি নেতাকে মারধর, অভিযুক্ত তৃণমূল                      

গোপাল রায়, আমাদের ভারত, আরামবাগ, ৩০ জুলাই: আরামবাগে এক বিজেপি নেতা ও তার ছেলেকে মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত
দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই বিজেপি নেতা ও তার ছেলেকে উদ্ধার করে আরামবাগ মহাকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত বিজেপি নেতার নাম প্রণব বাগ। ঘটনাটি ঘটেছে হুগলীর আরামবাগের গৌরহাটি দুই নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বেহালা এলাকায়। এই মারধরের ঘটনায় তৃণমূলের বেশ কয়েকজনের নামে আরামবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানাগেছে।

আক্রান্ত বিজেপি নেতার অভিযোগ, তার ছেলেকে তৃণমূল কর্মীরা যখন মারধর করে তখন তিনি বাড়ি ছিলেন না। সেই সময় তৃণমূল দুষ্কৃতীরা তাকে একা পেয়ে লাঠি ও ইট দিয়ে মারধর করে। এরপর দুষ্কৃতিরা যাওয়ার সময় রাস্তায় ওই তৃণমূল নেতাকে দেখতে পেলে তাকেও ব্যাপক মারধর করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজনরা গুরুতর আহত অবস্থায় ওই বিজেপি নেতা ও তার ছেলেকে উদ্ধার করে আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে। এই ঘটনার পর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। 

বিজেপির যুব মোর্চা সভাপতি বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, আমাদের বিজেপি কার্যকতাকে মারধর করা হয়েছে। যদি তৃণমূল ভাবে এইরকম ভাবে সন্ত্রাস চালিয়ে
বিজেপিকে দমিয়ে রাখবে তাহলে ভুল করছে। ২০২১ এ তৃণমূল বলে কিছু থাকবে না। মুছে সাফ হয়ে যাবে। যদিও এই মারধরের ঘটনাকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে অস্বীকার করা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here