হাসপাতাল চত্বর থেকে গাছ কাটার অভিযোগ গোবরডাঙ্গা পুরপ্রশাসকের বিরুদ্ধে, প্রতিবাদের বিজেপির মিছিল

আমাদের ভারত, গোবরডাঙ্গা, ১৩ অক্টোবর: বন দফতরের অনুমতি ছাড়াই হাসপাতালের গাছ কাটার অভিযোগ উঠল তৃণমূল পরিচালিত উত্তর ২৪ পরগনার  গোবরডাঙ্গা পৌর প্রশাসকদের বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার গোবরডাঙ্গা ভারতীয় জনতা পার্টির মহিলা মোর্চার পক্ষ থেকে গাছ কাঁটা বন্ধ করে দেয়। প্রতিবাদ মিছিল বের করে হাসপাতাল চত্বরে প্রায় ১০০টি গাছ লাগায়। গোবরডাঙ্গার মহিলা মোর্চার সভা নেত্রী শর্মিষ্ঠা রায় বলেন, ভারতীয় জনতা পার্টি সৃষ্টির পক্ষে বিনাশের পক্ষে নয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গাছ কাটা শুরু হয়েছিল আমফান ঝড়ের পর থেকেই। বিজেপির অভিযোগ, আমফান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত গাছ তো কাঁটা হয়েছে। এমনকি জীবিত গাছ গুলিও একে একে কাটা হচ্ছে। সোমবার সকাল থেকে নতুন করে ফের ভালো জীবিত গাছগুলি যখন কাটা হচ্ছিল, বিজেপির নেতা কর্মীরা সেখানে গিয়ে বাধা দেয়। পৌর প্রশাসকের ঠিকেদারদের কাছে গাছ কাটার অনুমতির কাগজ দেখতে চাইলে তাঁরা গাছ কাটা বন্ধ করে ঘটনা স্থল থেকে পালিয়ে যায়। এরপর মঙ্গলবার সকালে গোবডাঙ্গার যুব মোর্চা ও মহিলা মোর্চার পক্ষ থেকে একটি প্রতিবাদ মিছিল বের করে। পরে হাসপাতাল চত্বরে প্রায় ১০০টি গাছ লাগায়।

অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের পৌর প্রশাসক শংকর দত্ত বলেন কে বা কারা গাছ কাটছে আমরা জানি না। বিজেপির কিছু লোকজন আমাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ করছে। প্রসঙ্গত নির্বাচনে তৃণমূলের একচ্ছত্র জয়লাভের পর মহকুমার বিভিন্ন জায়গায় গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে, কখনও তৃণমূল পরিচালিত পৌর প্রশাসকের বিরুদ্ধে আবার পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে, কখনও আবার স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে। 
    

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here