অভিভাবকহীন বালুরঘাট পুরসভায় পরিষেবা নেই সাধারণের, অনাথ আশ্রম ঘোষণার দাবি জানিয়ে অভিনব প্রতিবাদ বিজেপির

আমাদের ভারত, বালুরঘাট, ১৯ জানুয়ারি: অভিভাবকহীন বালুরঘাট পৌরসভা, নেই কোন পরিষেবা। অনাথ আশ্রম ঘোষণা করতে রবিবার ছুটির দিনে অভিনব প্রতিবাদ আন্দোলন বিজেপির। ঢাক ঢোল ও বাজি ফাটিয়ে র‍্যালি শহরজুড়ে। চিঠি পাঠানো হল প্রশাসনের কাছে। প্রায় পাঁচশো দিন ধরে পিতা মাতাহীন হয়ে রয়েছে এই পুরসভা দাবি বিজেপির। দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসন এই পুরসভাকে অনাথ আশ্রম ঘোষণা করুক অথবা পুরসভা কর্তৃপক্ষ নিজেই এই সিদ্ধান্ত নিক। এদিন তারই দাবি জানিয়ে ঢাক ঢোল বাজিয়ে শহর জুড়ে এক বর্ণাঢ্য র‍্যালি করে অভিনব প্রতিবাদ করেন বিজেপি নেতৃত্বরা। পুরসভার সামনে বাজিও ফাটানো হয় নেতৃত্বদের তরফে।

বিজেপির বালুরঘাট শহর মন্ডল সভাপতি সুমন বর্মন জানিয়েছেন, বর্তমানে পুরসভার জন পরিষেবা একেবারে ভেঙ্গে পড়েছে। দীর্ঘ ৪৫৩ দিন ধরে বালুরঘাট পৌরসভায় পিতামাতাহীন অবস্থায় পড়ে রয়েছে। যে কারণে এই পুরসভাকে সরকারি ভাবে অনাথ আশ্রম ঘোষণার দাবিতে জেলা শাসক ও পুরসভা কর্তৃপক্ষকে চিঠি করেছেন।

উল্লেখ্য দীর্ঘদিন আগেই শেষ হয়েছে বালুরঘাট পুরসভার মেয়াদ। যার পর শহরের নাগরিক পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতে দুই দফায় প্রশাসক বোর্ড বসানো হয় রাজ্যের তরফে। দীর্ঘ দিন পরেও সুষ্ঠ ভাবে পুরসভা চালাতে কেন নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হচ্ছে না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপি নেতৃত্বরা। অভিযোগ বালুরঘাটের পৌরসভায় কোন বোর্ড না থাকায় নাগরিকরা সাধারণ পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। বাসিন্দা শংসাপত্র থেকে ইনকাম সার্টিফিকেট, জাতি শংসাপত্র সবেতেই চরম ভোগান্তি হতে হচ্ছে বাসিন্দাদের। একটি সাধারন শংসাপত্র নেবার ক্ষেত্রে আবেদন জানিয়ে তিন থেকে চারদিন ঘুরতে হচ্ছে পুরসভায়। যার পরেও মিলছে না সঠিক শংসাপত্র বলেও অভিযোগ বাসিন্দাদের। শুধু তাই নয়, বিঘ্নিত হচ্ছে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে নাগরিক পরিষেবাও। বেহাল শহরের রাস্তাঘাট, লাটে উঠেছে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা। এমন সব ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েই এদিন অভিনব আন্দোলনে নামে বালুরঘাট শহর মন্ডল বিজেপি। শহরের প্রতিটি নাগরিককে অনাথ সার্টিফিকেট প্রদানের পাশাপাশি বৃদ্ধ ভাতা, বিধবা ভাতার মতো ‘অনাথ ভাতা’ও চালু করার দাবী জানানো হয়েছে প্রশাসনের কাছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here