ফারাক্কায় ব্রিজ দুর্ঘটনার তদন্তের দাবি করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ

5

নীল বনিক, আমাদের ভারত, ১৭ ফেব্রুয়ারি: নির্মীয়মান ফারাক্কার দ্বিতীয় সেতু ভেঙ্গে বিপত্তির জন্য তদন্ত দাবি করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সোমবার উত্তরচব্বিশ পরগনার বারাসাতে তিনি বলেন, আমি এই ঘটনার তদন্ত দাবি করছি। আমি জানতে পেরেছি ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে দুই জনের। সম্পত্তির ক্ষতি হয়েছে। তবে কি কারনে এমন বিপত্তি তা বোঝা দরকার। সত্যিই কি কোনও ব্যক্তির গাফিলতি ছিল, না নির্মান কাজে কমা জিনিষপত্র ব্যাবহার হয়েছে। সককিছুই তদন্ত হওয়া উচিত। তদন্তে দোষ থাকলে তাদের শাস্তি পাওয়া উচিত বলে জানালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে কোনও কাজের দুর্ঘটনা হলে তার তদন্ত হয়। তারসঙ্গে দোষিরা শাস্তি পায়। তাই তিনি আশাবাদী খুব শীঘ্রই এই ঘটনার তদন্ত শুরু হবে। পাশাপাশি দুর্ঘটনায় মৃত পরিবারদের সমবেদনা জানান দিলীপ ঘোষ।

প্রসঙ্গত, রবিবার রাতে ফারাক্কায় নির্মীয়মান দ্বিতীয় সেতুর একাংশ ভেঙ্গে পড়ে। তাতে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের নাম শচীন প্রতাপ(৩০) ও ইঞ্জিনিয়ার শ্রীনিবাসন রাও।আহতদের মধ্যে একজনের নাম মুকেশ পান্ডে, বাড়ি দিল্লি। অন্যজন রঞ্জন কুমার মাহাত, বাড়ি বিহারের ঔরঙ্গবাদ। ২ জনকে আশঙ্কা অবস্থায় কলকাতায় স্থানাত্বর করা হয়েছে। রাতভোর উদ্ধার কাজ চলে। সোমবার সকালেও উদ্ধার কাজ চলছে। এছাড়া আরও ৪জন আহত হয়েছেন বলে জানাগেছে।

জানা গিয়েছে, দ্বিতীয় ফারাক্কা সেতু তৈরীর কাজ চলছিল। কাজ চলছিল জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষের অধীনে। সেখানে আর কে সংস্থার কাজ চলছিল। কাল রাতে ওই সেতুর গার্ডারে জনাদশেক শ্রমিক কাজ করছিলেন। সেখানে শ্রীনিবাসন রাও নামে একজন ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। হঠাৎই হুড়মুড়িয়ে গার্ডার ভেঙ্গে পড়ে। স্থানীয়রা তড়িঘড়ি উদ্ধার কাজে হাত লাগায়। ঘটনায় ছয়জনকে উদ্ধার করা হয়। এদের মধ্যে দুই জনের মৃত্যু হয়। বাকিরা স্থানীয় বেসরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আশঙ্কাজনক দুইজনকে কলকাতায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here