নবান্ন অভিযানের পালটা কড়া প্রতিক্রিয়া! “বিজেপি সন্ত্রাসবাদী দল”, বললেন ফিরহাদ

রাজেন রায়, কলকাতা, ৮ অক্টোবর: “মহামারী আইনের বারণ থাকা সত্ত্বেও শোনেনি। ওরা আসলে একটা সন্ত্রাসবাদীদের দল। রাজ্যের শান্তি শৃঙ্খলা ভঙ্গ করার চেষ্টা করছে বিজেপি।” বৃহস্পতিবার এই ভাষাতেই বিজেপির নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে তোপ দাগলেন পুরমন্ত্রী তথা পুর প্রশাসক মণ্ডলীর মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

এদিন বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক উত্তেজনা ছাড়ায় কলকাতা ও হাওড়ার বিস্তীর্ণ এলাকায়। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, তাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে পুলিশ দিয়ে গায়ের জোরে দমানোর চেষ্টা করেছে শাসকদল তৃণমূল। বিজেপির নবান্ন অভিযান যখন উত্তাল, কলকাতা ও হাওড়া তখনই তাঁদের কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

এদিন হাওড়াতে বিজেপির আন্দোলনের কেন্দ্র স্থল থেকে পিস্তল উদ্ধার হয়। সে প্রসঙ্গে ফিরহাদ বলেন,‘বিজেপি তো কোনও রাজনৈতিক দল নয়, বিজেপি সন্ত্রাসবাদীদের দল। আর সন্ত্রাসবাদীদের ঠিক করতে যা করতে হয় পুলিশকে তা করতে বলা হয়েছে। গুজরাট, দিল্লি, উত্তর প্রদেশের হিংসা ছড়ানোর পর এবার পশ্চিমবঙ্গকে অশান্ত করতে এসেছে বিজেপি। রাজনৈতিক দলের মিছিল থেকে বোমা ছোড়া যায় না। রাজনৈতিক দলের মিছিলে ঝান্ডা থাকবে, স্লোগান থাকবে। রাজনৈতিক দল তাদের কথা মানুষের সামনে তুলে ধরবে। গণতন্ত্রে মানুষ ঠিক করবে।’

ফিরহাদের অভিযোগ, পেশি শক্তির জোরে বিজেপি দিল্লির কায়দায় বাংলা দখল করতে চাইছে। তিনি বলেন, ‘যত বাহুবলী এখন সবাই বিজেপিতে যোগদান করেছেন। আর তার পরই বাহুবল প্রদর্শন শুরু করেছে বিজেপি। শুধুমাত্র বাহুবল প্রদর্শনের মাধ্যমে মানুষকে ভীত সন্ত্রস্ত করাই এই দলের কাজ। এদের কার্যকলাপের জন্যই রাজ্যে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে।’

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here