বনগাঁয় নতুন কংক্রিটের সেতুর দাবিতে অবরোধ বিক্ষোভ

সুশান্ত ঘোষ, আমাদের ভারত, উত্তর ২৪ পরগণা, ২২ নভেম্বর: জরাজীর্ণ কাঠের সেতুর জায়গায় নতুন ‌পাকা সেতু নির্মানের দাবিতে আন্দোলনে নামলেন গ্রামবাসীরা। মঙ্গলবার নিজেদের দাবির সমর্থনে এই আন্দোলনে সামিল হলেন গ্রামবাসীরা। এই ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ ব্লকের মামুদপুর এলাকার।

স্থানীয় সূত্রের খবর, বনগাঁ ব্লকের চৌবাড়িয়া ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের মামুদপুর এলাকায় পার্বতী খালের উপর প্রায় ৩০ মিটার দীর্ঘ একটি কাঠের সেতু রয়েছে। জনবহুল গ্রামীণ রাস্তার সঙ্গে সংযুক্ত এই সেতুটি দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় বেহাল হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় মাঝেমধ্যেই সেখানে দুর্ঘটনা ঘটছে। রাজ্যের সেচ দপ্তরের বিদ্যাধরী ড্রেনেজ ডিভিশনের অধীনে থাকা এই সেতুটি সংস্কারের জন্য বার বার অনুরোধ করা হলেও কোনও সুরাহা হচ্ছে না বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। ফলে সেচ দপ্তরের উপর ক্ষোভ বাড়ছে এলাকার মানুষের। এই সেতুর উপর দিয়ে সাতাশি, গড়ালি, কনকপুর, রুস্তমনগর সহ এলাকার প্রায় ১০ টি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ যাতায়াত করেন৷ বাজার, হাসপাতাল, স্কুল সহ যেকোনও প্রয়োজনে পার্বতী খালের ওপরে থাকা এই দুর্বল সেতু দিয়েই গ্রামের মানুষদেরকে যাতায়াত করতে হয়৷

গ্রামবাসী টুলু মণ্ডল, তপন বিশ্বাস, প্রদীপ সরকারদের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে এই সেতুর রক্ষণাবেক্ষণ না হওয়ায় সেতুটি বর্তমানে বিপজ্জনক হয়ে পড়েছে। যে কোনও মুহূর্তে বড় বিপদ ঘটে যাওযার আশঙ্কা করছেন গ্রামবাসীরা। তাই এই স্থানে পাকা সেতুর দাবিতে মঙ্গলবার সেতুর উপর দাঁড়িয়েই বিক্ষোভ দেখালেন এলাকার ভুক্তভোগী বাসিন্দারা৷

এলাকার বিজেপি বিধায়ক স্বপন মজুমদার বলেন, এই সরকার থাকা কালীন কিছু হবে না। কারণ এই সরকারের উপর থেকে নিচু পর্যন্ত নেতা কর্মীরা কোনো কাজ হওয়ার আগেই কাটমানি নিতেই ব্যস্ত। একে একে অনেক কেন্দ্রীয় প্রকল্প বন্ধ হয়েছে এদের কাটমানি দিতে গিয়ে। এরা ভাঁওতাবাজির সরকার, চিটিংবাজ সরকার। আমি এলাকার মানুষদের আশ্বস্ত করছি বিজেপি ক্ষমতায় এলেই ওই সেতুর কাজ শুরু করব।

যদিও সব কিছু স্বীকার করে পঞ্চায়েত সমিতির সৌমেন দত্ত বলেন, ওই সেতু পঞ্চায়েত থেকে কিছু করার নেই। এলাকার মানুষ আমাদের লিখিত ভাবে জানাক, আমারা সেচ দপ্তরে জানাবো।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here