সবংয়ে তৃণমূলের রক্তদান শিবির

আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ১৭ মে: গ্রীষ্মকালে রক্তের ব্যাপক চাহিদা যেমন থাকে তেমনি রক্তের সঙ্কটও দেখা যায়। কিন্তু এবার করোনার জেরে মানুষ গৃহবন্দি থাকায় অন্যান্য বছরের মতো এবার এই গ্রীষ্মকালীন সময়ে বিভিন্ন ক্লাব সংগঠনগুলি রক্তদান শিবির করতে পারেনি। কিন্তু হাসপাতালগুলোতে রক্তের সংকট মেটাতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্নভাবে প্রচার চালানো হচ্ছে। এমনকি রক্তের তীব্র সংকট মেটাতে জেলার পুলিশ সুপার কিংবা জেলাশাসক স্বয়ং শিবিরে গিয়ে রক্তদান করে আসছেন। রবিবার সবং ব্লকের ভেমুয়া ১০ নং অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে রক্তদান জীবনদান, এই স্লোগান সামনে রেখে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। শিবিরের সূচনা করেন সবং ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অমল পন্ডা। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ ডঃ মানস রঞ্জন ভুঁইঞা, স্থানীয় বিধায়ক গীতা রানী ভুঁইঞা, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার যুব সভাপতি প্রসেনজিৎ চক্রবর্তী, সবং ব্লক যুব সভাপতি আবু কালাম বক্স, সবং পঞ্চায়েত সমিতির কৃষি কর্মাধ্যক্ষ তরুণ মিশ্র, ভেমুয়া ১০ নম্বর অঞ্চল যুব সভাপতি রাজীব সী, প্রমুখ।

শিবির থেকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ ও পাঁশকুড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের ব্ল্যাডব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ রক্ত সংগ্রহ করে। উদ্যোক্তা তরুণ কুমার মিশ্র ও রাজীব সী জানিয়েছেন, সরকারি নিয়ম নীতি মেনে, নির্দিষ্ট দূরত্ব মেপেই শিবিরের আয়োজন করা হয়েছিল।
সবং কৃষি কর্মাধ্যক্ষ তরুণ মিশ্র বলেন, বিশেষ করে রক্তের সংকটে পড়া থ্যালাসেমিয়া রোগীদের প্রয়োজনে এদিন আমাদের সকলের উদ্যোগে এই শামিল হওয়া। লকডাউনের দুর্দিনেও ১৫০ জন পুরুষ ও ৫০ জন মহিলা রক্তদান শিবিরে অংশগ্রহণ করেন এবং রক্ত দেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here