উস্কানিমূলক বক্তব্য ! দিল্লি হিংসার চার্জশিটে অভিযুক্ত হিসেবে নাম এলো বৃন্দা কারাত ও সালমন খুরশিদের

আমাদের ভারত, ২৪ সেপ্টেম্বর: দিল্লি হিংসায় এবার প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সালমান খুরশিদ এবং সিপিএম নেত্রী বৃন্দা করাতের নাম অভিযুক্ত হিসেবে রয়েছে। দিল্লি হিংসার মামলায় দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল ১৭ সেপ্টেম্বর ১৭ হাজার পাতার চার্জশিট দাখিল করেছে। এই মামলার সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে সালমান খুরশিদ ও বৃন্দা কারাতের বিরূদ্ধে উসকানিমূলক বক্তব্য রাখার অভিযোগ করা হয়েছে।

দিল্লি পুলিশের অভিযোগ, ফেব্রুয়ারি মাসে সিএএ বিরোধী আন্দোলনে যোগ দিয়ে একাধিক সভায় বৃন্দা কারাত ও কংগ্রেস নেতা খুরশিদ উস্কানিমূলক নানা মন্তব্য করেছেন। একই অভিযোগ করা হয়েছে প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ উদিত রাজের বিরুদ্ধে। যিনি বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন লোকসভা নির্বাচনের আগে।

উত্তর পূর্ব দিল্লির প্রাক্তন কংগ্রেস কাউন্সিলর ইসরাত জাহান এবং আরেক সংরক্ষিত সাক্ষীর বয়ান উদ্ধৃত করে চার্জশিটে বলা হয়েছে, ওমর খালিদ ও নাদিম খানের মতই বৃন্দা, খুরশিদরা সিএএ বিরোধী সভায় উস্কানিমূলক মন্তব্য করেছেন, যা দিল্লি হিংসায় অনুঘটকের কাজ করেছে।

সাক্ষী ইসরাত তার বয়ানে জানিয়েছেন, তিনি এবং জামিয়া সমন্বয় কমিটির খালেদ সাইফি বেশ কিছুদিন ধরে সিএএ বিরোধী আন্দোলন চালানোর জন্য চলচ্চিত্র নির্মাতা রাহুল রায় এবং দলিত সংগঠন ভিম আর্মির নেতা হিমাংশু ও চন্দন কুমারকে বিভিন্ন সময় প্রতিবাদ সভায় ডেকে এনেছিলেন।

১৭ হাজার পাতার চার্জশিটে দিল্লি হিংসায় মূল ও প্রত্যক্ষ অভিযুক্ত হিসেবে ১৫ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে বরখাস্ত আপ কাউন্সিলর তাহের হোসেন। এরা সবাই প্রত্যক্ষভাবে দিল্লির হিংসা ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে অভিযুক্ত। আর সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে বৃন্দা, উদিত, খুরশিদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
চার্জশিটের নাম রয়েছে তার, নৌ এই খবর জানতে পারার পরেই উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা খুরশিদ বলেন,” দিল্লি পুলিশ ডাকলে জানতে চাইব আমার কোনো বক্তৃতায় হিংসা ছড়ানোর উস্কানি ছিল”।তার অভিযোগ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নিয়ন্ত্রণাধীন দিল্লি পুলিশ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here