কাটমানি দিতে অস্বীকার করায় তৃণমূল নেতার মারে হাত ভাঙ্গল বোনের, আহত দাদা

কাটমানি দিতে অস্বীকার করায় তৃণমূল নেতার মারে হাত ভাঙ্গল বোনের, আহত দাদা

আমাদের ভারত, সোনারপুর, ২ জুলাই: কাটমানির ২০ হাজার টাকা ফের‍ত দিতে রাজি না হওয়ায় আক্রান্ত হলেন ভাই ও বোন৷ ঘটনায় অভিযুক্ত স্থানীয় তৃণমূল নেতা দীপক ঘোষ ও তাঁর অনুগামীরা। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুর থানার অন্তর্গত নতুনপল্লীতে, পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডে। তৄণমুল কর্মীদের মারে হাত ভাঙ্গেছে বোনের৷ দুপক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন৷

জানাগেছে, সোনারপুরের নতুনপল্লীর বাসিন্দা দেবাশিস পাল৷ তার বাড়ির সামনে হাইড্রেনের কাজ চলছে৷ বাড়ির নিকাশিনালার জল এই হাইড্রেনের সাথে যুক্ত করার জন্য তিনি কর্মরত পৌরকর্মীদের বলেন৷ তারাই একটি পাইপ লাগানোর কথা বলেন দেবাশিসবাবুকে৷ অভিযোগ, সেইমত কাজ করতে গেলে স্থানীয় তৄণমুল নেতা ও ওয়ার্ড উন্নয়ন কমিটির সদস্য দীপক ঘোষ লোকজন নিয়ে তার কাছে কুড়ি হাজার টাকা দাবি করেন৷ দেবাশিসবাবু কারণ জানতে চান। অভিযোগ এরপরেই দেবাশিসবাবুর উপর চড়াও হয় দীপক ও তার লোকজন৷ দেবাশিসবাবুকে বেধড়ক মারধর করে। তাকে বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত হন তার দিদি রূমা রায়৷ মারের চোটে রূমা দেবীর বাঁ হাত ভেঙেছে৷

অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা দীপক ঘোষ টাকা চাওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন৷ তার পাল্টা অভিযোগ উন্নয়নের কাজে বাধা দেয় দেবাশিস৷ এই নিয়ে বলতে গেলে তাঁকে গালাগাল ও মারার চেষ্টা করে৷

আক্রান্ত দেবাশিসবাবু থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন৷
পাল্টা দেবাশিসের নামেও সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন দীপক ঘোষ। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে সোনারপুর থানার পুলিশ৷

Related Articles

1 Comment

  • দেবাশীষ হালদার , July 4, 2019 @ 3:07 PM

    তদন্ত ঘোড়ার ডিম হবে।
    ঘটনা ঠিক কি আমরা সবাই ঠিকই বুঝেছি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × five =