উদয়পুরের মতো নৃশংস হত্যা আগেই হয়েছে মহারাষ্ট্রে, মুন্ডচ্ছেদ করা হয় এক চিকিৎসাকর্মীর, জানিয়েছে অর্গানাইজার উইকলি

আমাদের ভারত, ২৯ জুন:
মঙ্গলবার নুপুর শর্মার বক্তব্যের সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করায় পেশায় দর্জি রাজস্থানের যুবক কানহাইয়া লালকে হত্যা করে দুই মুসলিম যুবক। গতকালই আরএসএস এর মুখপত্র অর্গানাইজার উইকলি টুইটারে একটি পোস্ট করে দাবি করছে এই একই ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটেছে মহারাষ্ট্রেও। বিজেপি নেত্রী নুপুর শর্মার সমর্থনে একটি পোস্ট করায় মহারাষ্ট্রের চিকিৎসাকর্মীর শিরশ্ছেদ করা হয়েছে। আর এই ঘটনা ২১ জুনের।

উদয়পুরের ঘটনায় দেশজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে তৎপর হয়েছে রাজস্থান সরকার। গতকালই দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু এই ঘটনায় বড় কোনো জঙ্গি সংগঠন যুক্ত থাকার আশঙ্কায় এই হত্যার ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব নিয়েছে এনআইএ। এরমধ্যে মহারাষ্ট্রের ঘটনা প্রকাশ্যে আসায় নতুন করে উত্তেজনা তৈরী হয়েছে। অর্গানাইজার উইকলি ট্যুইট করে জানিয়েছে, এই নৃশংস ঘটনাটি ঘটে ২১ জুন। কিছুদিন আগে চিকিৎসাকর্মী উমেশ খোলি নুপুর শর্মাকে সমর্থন করে একটি পোস্ট শেয়ার করেন। এরপর ২১ জুন রাতে তার মুন্ডচ্ছেদ করা হয়। উমেশের একটি ছবিও টুইট করা হয়েছে আরএসএসের মুখপত্রের তরফে।

আরএসএসের ইংরেজি মুখপাত্র অর্গানাইজার উইকলি জানিয়েছে, এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিল চার জন। ২৪ বছরের আব্দুল, ২২ বছরের শোয়েব খান, ২২ বছরের মুদ্দাশির আহমেদ শেখ ইব্রাহিম ও ২৪ বছরের শাহরুখ পাঠান হিদায়াত খানকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এদিকে উদয়পুরের ঘটনায় আইসিস যোগ থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। হেফাজতে নেওয়া অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এই বিষয়ে নিশ্চিত হতে চাইছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। কিছুদিন আগে কাবুলের গুরুদ্বারে হামলার দায় স্বীকার করে বিস্ফোরক বয়ান দিয়েছিল জঙ্গি সংগঠন আইসিস। তারা জানিয়েছিল, নবির অপমানের বদলা নিতেই হামলা চালিয়েছে তারা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here