আবার চিনকে ধাক্কা ভারতের! 4g পরিকাঠামো উন্নয়নে চিনা সংস্থার বরাত বাতিল করল BSNL

আমাদের ভারত, ১ জুলাই:ফের চিনকে ধাক্কা দিল ভারত। চিনকে হাতে মারার আগে ভাতে মারা শুরু করল ভারত। চিনা সংস্থার বরাত বাতিল করল বিএসএনএল।

সীমান্তে দু’দেশের সম্পর্ক তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। তার সঙ্গে অবনতি হয়েছে দু’দেশের কূটনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্কও। এক এক করে চিনা সংস্থার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে ভারত। বিএসএনএলের 4g পরিষেবা আপগ্রেড করার জন্য ডাকা দরপত্রে চিনা সংস্থাকে বাতিল করে দিল সরকার ।

সীমান্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের পর থেকেই দেশজুড়ে চিনা পণ্য বয়কটের ডাক ওঠে। মন কি বাত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আত্মনির্ভরতার প্রসঙ্গ তুলে বিদেশি দ্রব্য বাতিলের করার আহ্বান জানান। তারপরই সোমবার রাতে দেশবাসী সুরক্ষার বিষয়টি তুলে চিনের ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে কেন্দ্র সরকার।

এবার চিনকে সম্পূর্ণভাবে বয়কট করতে কেন্দ্রের প্রধান টেলিযোগাযোগ বিভাগ বিএসএনএল ও এমটিএনএলের পরিষেবাগুলিকে আপগ্রেড করার দরপত্র বাতিল করে দেওয়া হল। সোমবারের পর কেন্দ্র বিএসএনএলকে নির্দেশ দিয়েছিল দেশীয় পরিষেবা উন্নয়নের কোন কাজে যেন চিনা সংস্থাকে বরাত না দেওয়া হয়। এমনকি তাদের কোনো রকম সাহায্য যেন না নেওয়া হয়।

বিএসএনএলের তরফেও বিবৃতি জারি করে বলা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশেই 4g পরিষেবা উন্নত করতে যে চিনা সংস্থাকে টেন্ডারের মাধ্যমে বেছে নেওয়া হয়েছিল তা বাতিল করা হলো। প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকার চুক্তি হয়েছিল পরিষেবা উন্নত করার জন্য।

এর জন্য যন্ত্রাংশ আসতো চিন থেকে। কিন্তু এখন তা বাতিল করা হয়েছে। বেইজিংকে জবাব দিতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে দিল্লি বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা।বিএসএনএলের এক শীর্ষ আধিকারিকের কথায়, প্রধানমন্ত্রী আত্মনির্ভর ভারত গড়ার ডাক দিয়েছেন অর্থাৎ 4g পরিকাঠামো উন্নয়নের জন্য যে যন্ত্রাংশ প্রয়োজন তা এবার হয়তো ভারতেই তৈরি হবে। বিএসএন এলের কর্তারা আশাবাদী ভারতে তৈরি হওয়া যন্ত্রাংশ দিয়েই 4gর পরিকাঠামো সাজানো হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here