করোনার মধ্যেই আবার আরও এক নতুন মহামারীর আশঙ্কা

আমাদের ভারত, ৮ আগস্ট: করোনার পর আবার নতুন মহামারীর আশংকা দেখা দিল চিনে। উত্তর চিনের মঙ্গোলিয়ায় বিউবোনিক প্লেগে একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর। জুলাইয়ের প্রথমদিক থেকেই সেখানে এই রোগ টের পাওয়া গেছে।
তারপরই গোটা প্রদেশে হাই অ্যালার্ট জারি ছিল। কিন্তু এই রোগে এবার মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যাচ্ছে। আর তার পরেই ওই এলাকায় সিল করে দেওয়া হয়েছে বলে খবর।

বিউবনিট প্লেগ মারাত্মক সংক্রামক একটি রোগ। দ্রুত তা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। জুলাই প্রথম দিকে উত্তর চিনের মঙ্গোলিয়ার একটি হাসপাতালে অজানা একটি রোগ নিয়ে ভর্তি হন এক রোগী। পরীক্ষা করে চিকিৎসকরা বুঝতে পারেন সে বিউবনিক প্লেগ রোগে আক্রান্ত। এটি একটি সংক্রামক এবং ভয়াবহ অসুখ। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই রোগে আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

বিউবনিক প্লেগ বোঝার পরই চিকিৎসকরা স্থানীয় প্রশাসনকে খবর দেন। তারপর হাই এলার্ট জারি করা হয় ওই এলাকায়।

চিনের সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর গত পয়লা জুলাই দক্ষিণ মঙ্গোলিয়াতেও দুজনের শরীরে প্লেগের জীবাণু পাওয়া গিয়েছিল। এরা সকলেই মারমোটের মাংস খেয়ে ছিল। মারমোট হল এক ধরনের পাহাড়ি মূষিক। মঙ্গোলিয়া অঞ্চলের অনেকেই এই মূষিকের মাংস খান। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন বন্য ইঁদুর জাতীয় প্রাণীর শরীরে এক ধরনের পোকা জন্মায়। সে পোকার মাধ্যমেই বিউবনিক ব্যাকটেরিয়া সংক্রমিত হয়। দ্রুত এই ব্যাকটেরিয়া একজনের শরীর থেকে অন্যজনের শরীরে ছড়ানোর সম্ভাবনা থাকে। সেই কারণেই বিশেষজ্ঞরা মন করছেন আক্রান্ত হবার ২৪ ঘন্টার মধ্যে চিকিৎসা না পেলে রোগীর মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। তাই ওই এলাকার মানুষকে সাবধানতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। অল্প শরীর খারাপ হলেই চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে স্থানীয় প্রশাসনের তরফে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here