প্রার্থীর অপরাধ যোগের তথ্য লুকোচ্ছে দল, রেজিস্ট্রেশন বাতিলের দাবি নিয়ে শীর্ষ আদালতের দায়ের হয়েছে মামলা

আমাদের ভারত, ১৮ জানুয়ারি:গত বছর আগস্টে রাজনীতিকে অপরাধমুক্ত করতে কড়া রায় দিয়েছিল দেশের শীর্ষ আদালত। রায়ে বলা হয় রাজনৈতিক দলগুলিকে প্রার্থীদের অপরাধ যোগের সম্পূর্ণ নথি জমা দিতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। এবার শীর্ষ আদালতের সেই নির্দেশ অমান্য করার অভিযোগে মামলা হলো সুপ্রিম কোর্টে। মামলাকারী দাবি করেছে রাজনৈতিক দলগুলি প্রার্থীদের অপরাধ যোগের তথ্য লুকোচ্ছে সংশ্লিষ্ট দল। দাবি করা হয়েছে যারা এইকাজ করেছে সেই সব দলের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করা হোক।

দেশের শীর্ষ আদালত মামলাটি শুনানিতে রাজি হয়েছে। এই মামলাটি প্রধান বিচারপতির বেঞ্চে উঠেছে। মামলাকারীর আইনজীবী অশ্বিনী কুমার উপাধ্যায় এই বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন। অশ্বনী উপাধ্যায় উল্লেখ করেন, “সামনে ৫ রাজ্যে ভোট, এক্ষেত্রে যে প্রার্থীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা রয়েছে আমরা কি তাদের মনোনয়ন দাখিলে বাধা দিতে পারি?” আদালত জানায়, “আমাদের জানিয়েছেন আমরা মামলাটি শুনবো”। কিন্তু উপাধ্যায় মামলাটির জরুরী শুনানির আবেদন জানিয়েছেন। এখনো পর্যন্ত শুনানির দিনক্ষণ ঠিক হয়নি বলে জানা গিয়েছে।

বর্তমানে মামলাটির আবেদনে বলা হয়েছে নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিতে হবে যাতে সব দল তাদের ওয়েবসাইটে প্রার্থীদের অপরাধ যোগের কথা জানায়। একইসঙ্গে উল্লেখ করতে হবে কেন অপরাধী থাকার পরেও ওই সব মানুষকে দলগুলি তাদের প্রার্থী করেছে? মামলায় আরও দাবি করা হয়েছে প্রত্যেক প্রার্থীকে তাদের বিরুদ্ধে থাকা মামলার কথা ইলেকট্রনিক, প্রিন্ট এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানাতে হবে। একইসঙ্গে দাবি করা হয়েছে যেসব রাজনৈতিক দল প্রার্থীদের অপরাধের তথ্য গোপন করেছে, সেই দলগুলির প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা রুজু করতে হবে।

২০২০ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি শুনানিতে সুপ্রিমকোর্ট বলেছিল প্রার্থী নির্বাচিত করার ৪৮ ঘন্টা থেকে ২ সপ্তাহের মধ্যে রাজনৈতিক দলগুলিকে প্রার্থী সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য সংবাদপত্রে প্রকাশ করতে হবে। অপরাধবোধ থাকা সত্ত্বেও কেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে প্রার্থী হিসেবে বাছাই করা হলো তা জানিয়ে রাজনৈতিক দলগুলিকে নিজেদের ওয়েবসাইটে তথ্য প্রকাশ করতে হবে। এবার সেই নির্দেশ মানা হচ্ছিল না বলেই রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠল।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here