স্বপ্ন পূরণ! চাঁদের দেশে পাড়ি চন্দ্রযান-২ এর

স্বপ্ন পূরণ! চাঁদের দেশে পাড়ি চন্দ্রযান-২ এর

আমাদের ভারত ডেস্ক,২২ জুলাই: সোমবার দুপুর ২টো ৪৩ মিনিটে চাঁদের দেশে পাড়ি দিল চন্দ্রযান-২। জিও সিনক্রোনাস স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকেল চন্দ্রযান-২কে নিয়ে উড়ে যায় মহাকাশে।

শ্রীহরিকোটায় সতীশ ধাওয়ান মহাকাশ কেন্দ্র থেকে চাঁদে পাড়ি দিয়েছে ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্রযান। মাত্র ১৬ মিনিটের মধ্যে মহাকাশের নির্দিষ্ট কক্ষপথে পৌঁছেছে চন্দ্রযান। তাকে সেখানে পৌঁছে দেয় রকেট বাহুবলি।ঝভারতের সবচেয়ে শক্তিশালী রকেটে চাঁদে পাড়ি দিল এই চন্দ্রযান-২।

স্যাটেলাইট জিও সিনক্রোনাস স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকেল ম্যাক থ্রীয়ের মাধ্যমে চাঁদে পাঠানো হয়েছে চন্দ্রযান-২ কে। লঞ্চ ভেহিকেলে থাকছে একটি অরবিটার,বিক্রম নামের একটি ল্যান্ড রোভার, প্রজ্ঞান।

সেপ্টেম্বরে চাঁদের বুকে পৌঁছানো যাবে। চন্দ্রযান-২ এর অভিযানে খরচ প্রায় এক হাজার কোটি টাকা। ভারতের বানানো চন্দ্রযান -২ এর ওজন ৩.৮ টন। অরবিটারটি চন্দ্রপৃষ্ঠে ও চাঁদের খনিজের ছবি তুলবে ও ম্যাপিং করবে। ল্যান্ডারের অংশের ওজন ১৪৭১ কিলোগ্রাম। এছাড়াও চাঁদের ভূমিকম্প, চাঁদের তাপমাত্রা সংক্রান্ত বিষয়টি ও পর্যবেক্ষণ করবে এটি।

প্রজ্ঞান নামের ২৭ কিলোগ্রামের ছয় চাকার চলমান যানের মাধ্যমে চাঁদের মাটির পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে‌ চাঁদের দক্ষিণ প্রান্তের পর্যবেক্ষণ চালাবে প্রজ্ঞান। ১৪দিন ধরে চাঁদের আধ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে সফর করবে এই রোভার।

এই অভিযান যদি সফল হয় তাহলে চাঁদের মাটিতে যান পাঠানো দেশগুলির তালিকায় চতুর্থ স্থানে চলে আসবে ভারতের নাম। ইসরো কর্তা ডঃ শিভান জানিয়েছেন চাঁদের যে অংশে এই যানটি যাবে এর আগে কোন দেশের যান সেখানে পৌঁছায় নি। ফলে এই অভিযান সফল হলে মহাকাশ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ভারতের মর্যাদা কয়েক গুণ বেড়ে যাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five − 2 =