করোনার জেরে গাজনে চড়ক ঘুরবে না পুরুলিয়ায়

সাথী প্রামানিক, আমাদের ভারত, পুরুলিয়া, ১৩ এপ্রিল: গোটা বিশ্বে বিনোদন, উৎসব, মনোরঞ্জন থমকে গিয়েছে। করোনার জেরে ছেদ পড়ল গ্রাম বাংলার গাজন উৎসবেও। পুরুলিয়া জেলাও তার ব্যতিক্রম নয়। প্রাচীন গাজন উৎসব আর হচ্ছে না। এই প্রথমবার চড়ক ঘুরবে না। স্থগিত থাকল সংস্কৃতির উপস্থাপন।

পুরুলিয়া জেলার কয়েক’শ শৈব ক্ষেত্রে করোনা ভাইরাসের জেরে ভক্তের সমাগম আর ঘটবে না। কয়েকদিন আগে থেকেই মন্দিরের সামনে নোটিশ দিয়ে গাজন উৎসব বন্ধের কথা জানিয়ে দিয়েছে কমিটিগুলি।
  
পুরুলিয়ার পাড়া ব্লকের আনাড়ার বাণেশ্বর মন্দিরের সামনে নীলের পুজোয় ভক্তদের উদ্দেশ্যে না আসার জন্য নোটিশ দিয়ে জানিয়ে দেয় পুজো কমিটি। সেখানেও এবার ঐতিহ্যবাহী চড়ক অনুষ্ঠিত হবে না। শতাধিক ধর্মপ্রাণ মানুষ ভক্তা হতে পারবেন না।

অন্যদিকে, পুরুলিয়া-১ ব্লকের চিড়কা ধামেও হাজার হাজার ভক্তের সমাগম ঘটবে না। আগে থেকেই একথা জানিয়ে দেয় পুজো কমিটি। এছাড়া জেলার বহুল পরিচিত শৈব ক্ষেত্র বলরামপুরের বেড়াদা, পুঞ্চার বুধপুর, বাঘমুন্ডির লহরিয়া শিব মন্দিরেও এবার শিবের গাজন উৎসব অনুষ্ঠিত হবে না। ভক্তাদের নিয়ে ঘুরবে না চড়ক। জেলায় শতাধিক মন্দিরে শুধু মাত্র পুরোহিতরা পুজো করছেন। চড়ক গাজন অনুষ্ঠিত না হওয়ায় নিরাশ হয়ে পড়েছেন ধর্মপ্রাণ মানুষ।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমন থেকেই এই সাবধানতা এবং কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে উৎসব কমিটিগুলি। বাঘমুন্ডির অযোধ্যা পাহাড়ের কোলে প্রাচীন লহরিয়া শিব মন্দির প্রাঙ্গণে ১ বৈশাখ সকালে শতাধিক ভক্তা চড়কে ঘোরেন। চাক্ষুস করেন হাজার হাজার পুরুলিয়া জেলা ছাড়াও ঝাড়খন্ড রাজ্যের পুণ্যার্থী। এবার সেই দৃশ্য থেকে বিরত থাকবে লহরিয়া।        

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here