শেষ পর্যন্ত পাঁচিল টপকে বাড়িতে ঢুকে চিদম্বরমকে গ্রেফতার করল সিবিআই

শেষ পর্যন্ত পাঁচিল টপকে বাড়িতে ঢুকে  চিদম্বরমকে গ্রেফতার করল সিবিআই

আমাদের ভারত,২১ আগস্ট: সব নাটকের ইতি। শেষ পর্যন্ত গ্রেফতার হলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদম্বরম। বুধবার রাতে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। মঙ্গলবার রাত থেকেই তাঁর গ্রেফতারের আশঙ্কা ছিল। তবে ইডির নোটিসের পর থেকে বেপাত্তা হয়ে গিয়েছিলেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী। বুধবার রাতে চিদাম্বারাম প্রকাশ্যে আসার পরই তার বাড়িতে চলে যায় সিবিআই আধিকারিকরা। দরজা না খুললে দেওয়াল টপকে বাড়িতে ঢোকেন আধিকারিকরা। একটি বড়সড় নাটকের পরিস্থিতি তৈরি হয় সেখানে। শেষমেষ রাত পৌনে দশটায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার দিল্লি হাইকোর্টে চিদম্বরমের জামিনের আর্জি খারিজ হয়ে যেতেই আর তাকে দেখা যায়নি। ইডি তার বিরুদ্ধে লুআউট নোটিশ জারি করেছিল। এরপর বুধবার রাত আটটা নাগাদ দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর দপ্তরে পৌঁছান চিদাম্বরম। সেখানে গোলাম নবী আজাদ, কপিল সিব্বল, অভিষেক মনু সিংভির সঙ্গে সাংবাদিক বৈঠক করেন তিনি।

চিদম্বরম বলেন, ‘পালিয়ে যাইনি আমি। জামিনের আর্জি শুনানি চাইছিলাম শুধুমাত্র। ‘ আইনের হাত থেকে বাঁচতেই বেপাত্তা হয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছিলেন বিজেপির নেতারা। দেশের শাসক দলকে কটাক্ষ করে প্রাক্তন মন্ত্রী বলেন,”স্বাধীনতা গণতন্ত্রের ভিত। সংবিধানের ২১নং ধারায় তার উল্লেখ রয়েছে। তাতেই দেশের প্রতিটি নাগরিকের জীবন ও স্বাধীনতা নিশ্চিত হয়েছে। তাই এই দুটোর মধ্যে যদি একটাকে বেছে নিতে বলা হয় তাহলে স্বাধীনতাকেই বেছে নেব। গত ২৪ ঘণ্টায় যা ঘটেছে তাতে অনেকেই উদ্বিগ্ন এবং বিভ্রান্ত। আমি আই এন এক্স মামলায় অভিযুক্ত নই এবং আমার পরিবারের কোনো সদস্য এর সঙ্গে জড়িত নয়। এ নিয়ে আদালতে আমাদের কারোর বিরুদ্ধে কোনো চার্জশিট জমা দেয়নি সিবিআই এবং ইডি’।

তিনি বলেন, ‘আইন থেকে বাঁচতে আমি পালাইনি। যারা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন তাতে আমি অবাক হয়েছি। জামিনের পিটিশন নিয়ে শুক্রবার শুনানি হওয়ার কথা। তাই আইনজীবীদের পরামর্শ নিতে ব্যস্ত ছিলাম। কিন্তু দেশের তদন্তকারী সংস্থা আইনের অপব্যবহার করে পক্ষপাতমূলক ভাবে আমাকে ফাঁসচ্ছে। তবুও আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকবো সুপ্রিম কোর্টের রায় মাথা পেতে নেব।’

সাংবাদিক বৈঠকের পর তিনি বাড়ি ফেরেন। আর তখনই তার বাড়িতে হাজির হন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। পৌঁছে যায় ইডির একটি দল। সেখানে পৌঁছে যান সিবিআই আধিকারিকরা। কিন্তু, কেউ দরজা না খোলায় দেয়াল টপকে দিল্লিতে পি চিদম্বরমের বাড়িতে ঢোকেন সিবিআই আধিকারিকরা।
অন্যদিকে দিল্লিতে কংগ্রেসের সদরদপ্তরেও পৌঁছে গিয়েছিল গোয়েন্দাদের একটি দল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 2 =