দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠক মুখ্যমন্ত্রীর

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ২৩ মে: ঘূর্ণিঝড় আমফানের ফলে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। শুক্রবার একবার আকাশ পথে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে সেই সমস্ত বিপর্যস্ত এলাকা ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার বসিরহাটে প্রশাসনিক বৈঠকের পর শনিবার দক্ষিণ ২৪ পরগণার কাকদ্বীপে প্রশাসনিক বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিনও তিনি আকাশ পথে দক্ষিণ ২৪ পরগণার সাগর, বকখালি, ফ্রেজারগঞ্জ, নামখানা এলাকা ঘুরে দেখেন। আর তারপর কাকদ্বীপের মহকুমা শাসকের দফতরে একটি প্রশাসনিক বৈঠক করেন। কিভাবে এই দুর্যোগকে মোকাবিলা করা যাবে তা নিয়েই প্রশাসনিক আধিকারিকদের সাথে বৈঠক হয়। এদিনের বৈঠকে ক্যানিং, বারুইপুর, ডায়মন্ড হারবার ও কাকদ্বীপের মহকুমা শাসকরা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক পি উল্গানাথন ও তিন পুলিশ জেলার এস পি। এছাড়া ও ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার বিধায়ক ও ব্লক প্রশাসনের আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন এদিন। সকলকে একযোগে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করে এই দুর্যোগ পরিস্থিতিকে কাটিয়ে ওঠার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন তিনি বলেন, “ত্রাণ নিয়ে কেউ রাজনীতি করবেন না, কাউকে রাজনীতি করতে দেবেন না। এখন শুধুই দুর্গত মানুষদের পাশে দাঁড়াতে হবে”। তিনি আরও বলেন, জীবনে এর থেকে বড় ও ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় তিনি
দেখেননি। সবার আগে এই ঘূর্ণিঝড়ে যে সমস্ত মানুষজন নিজেদের ঘর হারিয়েছেন তাদের ঘরের ব্যবস্থা করার কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি এলাকাকে দ্রুত স্বাভাবিক ছন্দে ফিরিয়ে আনতে ১০০ দিনের প্রকল্পে কাজ করানোর পরামর্শও দেন মুখ্যমন্ত্রী। বর্তমানে একদিকে যেমন করোনা আতঙ্কের জেরে চলা লকডাউন, তেমনি ভিন রাজ্য থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো ও আমফানের দাপটে হওয়া ক্ষতি থেকে বেড়িয়ে আসা এতগুলো পরিস্থিতির সাথে লড়াই করতে হচ্ছে সকলকে।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানান, শুধুমাত্র দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলাতেই ১০ লক্ষের বেশি বাড়ি ভেঙ্গেছে। প্রায় ৪৭ হাজার বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গেছে। এর থেকে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে খানিকটা সময় লাগবে। দুর্যোগ মোকাবিলায় সকলকে একসাথে কাজ করার আবেদন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি যে সমস্ত দুর্গম এলাকায় জলের সমস্যা রয়েছে সেখানে জেনারেটরের মাধ্যমে পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার জন্য জনস্বাস্থ্য কারিগরি দফতরকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সমস্ত পরিস্থিতির সাথে মোকাবিলা করে দ্রুত স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার জন্য সকলকে কাজের প্রতি মন দেওয়ার কথাও বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here