মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তাঁকে নজরবন্দী করে রেখেছেন, অভিযোগ কেন্দ্রীয়মন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরীর

আমাদের ভারত, উত্তর দিনাজপুর, ২৫ এপ্রিল: আবাসন ছেড়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চোধুরী কয়েক মিনিটের জন্য বাইরে বের হওয়ায় পুলিশ মহলে হুলুস্থুল পড়ে যায়।পুলিশের গতিবিধি আন্দাজ করে সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আবার আবাসনে ফিরে আসেন। পুলিশ তাঁকে কেন খোঁজার চেষ্টা করে তার কারন সাতঘন্টার মধ্যে জানাতে না পারলে বিষয়টি উচ্চ পর্যায়ে অভিযোগ করার হুমকি দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। তাঁর অভিযোগ, মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তাঁকে নজরবন্দী করে রেখেছেন।

গত ৩১ মার্চ কলকাতা থেকে রায়গঞ্জে আসেন রায়গঞ্জের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দেবশ্রী চোধুরী। অন্য জেলা থেকে রায়গঞ্জে আসায় জেলা প্রশাসন তাঁকে হোম করোন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেন। আবাসনে করোন্টাইনের পোষ্টার লাগিয়ে দেয়। হোম করোন্টাইনের মেয়াদ শেষ হয় গত ১৪ এপ্রিল। মেয়াদ শেষ হওয়ায় মন্ত্রীর গতিবিধির উপর বিশেষ নজরদারি চালাচ্ছিল পুলিশ বলে অভিযোগ। শনিবার বিকাল পাঁচটার নাগাদ মন্ত্রী দেবশ্রী চোধুরী অন্য একজনের স্কুটি চেপে বাইরে বের হন। পুলিশ এই খবর পাবার পর বিশাল পুলিশ বাহিনী তাঁর খোঁজে আসরে নামে। রায়গঞ্জ সুর্দশনপুরের বেসরকারি একটি স্কুলের সামনে দিয়ে আবার আবাসনে ঢুকে পড়েন মন্ত্রী।

পুলিশ তাকে কি কারনে খোঁজ করছে তার কোনও উত্তর দিতে পারেন নি মন্ত্রী। এই প্রশ্নে মন্ত্রী উত্তেজিত হয়ে বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তাঁকে নজরবন্দী করে রেখেছেন। করোন্টাইনের মেয়াদ শেষ হবার পরও তাঁকে কেন নজরবন্দী করে রাখা হয়েছে এর উত্তর দাবি করেন।সাত ঘন্টার মধ্যে তিনি এর উত্তর না পেলে বিষয়টি উচ্চপর্যায়ে অভিযোগ জানানোর হুমকি দিয়েছেন। পুলিশ জানিয়েছে, লকডাউনে মধ্যে সাংসদ কি কারনে আবাসন ছেড়ে বাইরে এসেছেন তা জানতেই আবাসনের সামনে তাদের আসা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here