পঞ্চম দফার লকডাউনে পশ্চিমবঙ্গে লোকাল ট্রেন ও মেট্রো চালানোয় আপত্তি জানালেন মুখ্যসচিব

রাজেন রায়, কলকাতা, ২৮ মে: আমফান বিপর্যস্ত বঙ্গে এই মুহূর্তে পরিযায়ী শ্রমিকদের না পাঠানোর জন্য কেন্দ্রকে আর্জি জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু কেন্দ্রের তরফে সেই আর্জি না মানায় বৃহস্পতিবার একদিনে প্রায় সাড়ে তিনশোর কাছাকাছি করোনা সংক্রমণের হদিশ দিয়ে নতুন রেকর্ড গড়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এবার ৩১ মে চতুর্থ দফার লকডাউন শেষে ফের কলকাতা-সহ দেশের ১১টি শহরে জারি হতে চলেছে পঞ্চম দফার লকডাউন। তা নিয়ে বৃহস্পতিবার সব রাজ্যের মুখ্যসচিবদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট সচিব রাজীব গৌবা। সূত্রের খবর, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা আগামী ১ জুন থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন এবং মেট্রো চালানোর পরিষ্কার আপত্তি জানিয়েছেন। তবে সেটা কেন্দ্র মানবে কি না, সেটা বোঝা যাবে আর কিছুদিন পরেই।

এই বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা জানান, প্রতিদিন শিয়ালদহ এবং হাওড়া স্টেশন থেকে পূর্ব এবং দক্ষিণ পূর্ব রেলের লোকাল ট্রেনে প্রায় ২২ লক্ষ যাত্রী যাতায়াত করে থাকেন। মেট্রোয় সফর করেন গড়ে প্রতি দিন প্রায় ৫ লক্ষ মানুষ। এই মুহূর্তে রাজ্যে পরিযায়ী শ্রমিক ঢোকায় ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমণ বেড়ে গিয়েছে। লোকাল ট্রেন ও মেট্রোয় সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা কোনও ভাবেই সম্ভব হবে না। ফলে সমস্ত পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাবে।

সূত্রের খবর, রাজীব গৌবা রাজ্যের এই বিষয়গুলি অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে শুনেছেন এবং যথাযথ সিদ্ধান্ত নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। উল্লেখ্য, কাল ও পরশু এই নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিগোষ্ঠী বৈঠকে বসে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। তারপর লকডাউন ৫.০ সরকারি ভাবে ঘোষণা করা হবে। তবে সেখানে আরও কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়ার ঘোষণা করা হবে। মুখ্যসচিবের এই আপত্তি আদৌ বিবেচিত হল কি না, জানা যাবে সেখানেই।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here