ত্রাণ রাজনীতি! ত্রাণ বিলিকে কেন্দ্র করে কামারহাটিতে সংঘর্ষ, তৃণমূল কাউন্সিলরের বাড়ি ভাঙ্গচুর জনতার

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ৫ মে: ত্রাণ বিলি নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে উঠল বেলঘরিয়া থানা এলাকার কামারহাটি এলাকা। অভিযোগ, স্থানীয় এক যুবক ত্রাণ বিলির উদ্যোগ নেওয়ায় মারধর করেন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর ও তাঁর সাঙ্গপাঙ্গরা। পালটা কাউন্সিলরের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মানুষ। ভাঙ্গচুর চলে তৃণমূলের পার্টি অফিসে। ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন এক যুবক। গন্ডগোলে জড়িত থাকায় কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, সোমবার সন্ধ্যায় কামারহাটি পুরসভার ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে ত্রাণ বিলি করছিলেন স্থানীয় কিছু যুবক। অভিযোগ, সেই সময় সেখানে অনুগামীদের নিয়ে হামলা চালান তৃণমূল কাউন্সিলর রূপালি সরকার। তাঁর দাবি, কাউন্সিলর ছাড়া কারও ত্রাণ বিলির অধিকার নেই। এর পরই যুবকদের মারধর শুরু করে কাউন্সিলরের দলবল। মারের চোটে গুরুতর আঘাত পান সৌমেন দাস নামে এক যুবক। তাঁকে আরজি কর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। যুবকের ঘটনা আশঙ্কাজনক।

ছবি: আহত সৌমেন দাস।

মঙ্গলবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফের উত্তেজনা ছড়ায়। কাউন্সিলরের বাড়িতে হানা দেন সৌমেনের আত্মীয়-বন্ধুরা। কাউন্সিলরের ঘরের ভিতর ঢুকে ও এলাকার একটি তৃণমূল পার্টি অফিসে ভাঙ্গচুর চালায় উত্তেজিত জনতা। ঘটনাস্থলে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ পৌঁছলে তাঁদের লক্ষ করেই ইট ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। পরে বারাকপুরের পুলিশ সুপার মনোজ ভার্মাকে বাহিনী নিয়ে গিয়ে লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে হয়।

মঙ্গলবার রাতেও চাপা উত্তেজনা রয়েছে এলাকায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টহল দিচ্ছে পুলিশ। ঘটনায় অভিযুক্ত কাউন্সিলরের প্রতিক্রিয়া মেলেনি। সংঘর্ষে জড়িত থাকায় এলাকা থেকে বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here