আধিকারিকদের চাপে তাড়াতাড়ি অফিসে আসতে গিয়ে মৃত্যু, উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের দপ্তরে মৃতদেহ নিয়ে বিক্ষোভ সহকর্মীদের

আমাদের ভারত, হাওড়া, ১৮ জুন: পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হওয়া এক সহকর্মীর মৃতদেহ নিয়ে উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের দপ্তরে বিক্ষোভ দেখাল কর্মীরা। কর্মীদের অভিযোগ, দপ্তরের আধিকারিকদের চাপে তাড়াতাড়ি অফিসে আসতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে তাদের সহকর্মীর।

জানাগেছে, সাঁকরাইলের মানিকপুরের বাসিন্দা উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের দফতরের নির্বাচন বিভাগের কর্মী সুসেনজিৎ নস্কর (৩৪)। বৃহস্পতিবার সকালে এক সহকর্মীকে নিয়ে বাইকে চেপে অফিসে আসার সময় সকাল ন’টা নাগাদ ছ’নম্বর জাতীয় সড়কে পাঁচলা মোড়ের কাছে বাইকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তায় পড়ে যায়। ঠিক সেই সময় পিছন দিক থেকে আসা একটি ট্রাক তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনায় বাইকের অন্য আরোহী গুরুতর আহত হলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে ওই ব্যক্তি আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এদিকে এদিন বিকেলে মৃত কর্মীর দেহ ময়নাতদন্তের পর উলুবেড়িয়া মহকুমা শাসকের দফতরে আনা হলে সহকর্মীরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। তারা মহকুমাশাসকের অফিসের বাইরে মৃতদেহ নামিয়ে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। কর্মীদের অভিযোগ, লকডাউন চলায় রাস্তায় সেভাবে যানবাহন না থাকায় অফিসে আসতে সমস্যা হচ্ছে। যদিও আধিকারিকরা সেইসব বিবেচনা না করে প্রত্যেক কর্মীকে সঠিক সময় আসার জন্য নিয়মিত চাপ দিচ্ছে। আর এর ফলে দফতরের কর্মীরা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছে। তাদের অভিযোগ, বৃহস্পতিবার সুসেনজিৎ তাড়াতাড়ি অফিসে আসতে গিয়েই প্রাণ হারিয়েছে। কর্মীদের অভিযোগ, তাদের পাওনা ছুটি থাকলেও আধিকারিকরা ছুটি নিতে দিচ্ছে না। এমনকি কেউ যদি ছুটি নেয় তাহলে তাকে মানসিকভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে। অবিলম্বে দফতরে এইসব অনিয়ম বন্ধের দাবি জানান কর্মীরা। পরে মহকুমা শাসক কর্মীদের এই অভিযোগগুলি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিলে বিক্ষোভ ওঠে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here