আরামবাগে পুকুরঘাটে কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

5

আমাদের ভারত, আরামবাগ, ১৯ ফেব্রুয়ারি: হুগলির আরামবাগে এক কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করার অভিযোগে গ্রেফতার হলেন এক ৫০ বছরের এক ব্যক্তি। পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার আগে ওই ব্যক্তিকে গাছে বেঁধে ব্যাপক মারধর করে এলাকার মানুষ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের নাম মাধব চৌধুরী। তার বাড়ি আরামবাগ থানার মানিকপাঠ গ্রামে। মাধব চৌধুরী পেশায় চাষী। জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেলের দিকে ওই ছাত্রী পুকুরে ঘাটে গিয়েছিলেন। সেই সময়ে পুকুর পাড়েই ছিলেন ওই ব্যক্তি, এছাড়া আর কেউ ছিল না। অভিযোগ, সেই সুযোগে ছাত্রীটির ওই ব্যক্তি শ্লীলতাহানি করেন। মাধব চৌধুরী তাঁর হাত ধরে টানাটানি করে। ছাত্রীটির চিৎকার চেঁচামিচিতে গ্রামের লোকজন ছুটে যায়। ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগে মাধব চৌধুরী নামে ওই ব্যক্তিকে ধরে ফেলে। এরপর এলাকাবাসী গাছে বেঁধে মারধর করে। পরে তারাই ওই ব্যক্তিকে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

রাতে ছাত্রীটি আরামবাগ মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ছাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ মঙ্গলবার রাতেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনার জেরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। যদিও এই ঘটনার বিষয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তি কোনও মন্তব্য করতে চান। অভিযুক্তকে আজ আরামবাগ মহকুমা আদালতে বুধবার তোলা হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here