কলকাতা ও শহরতলি রাজ্য

নোটবন্দির বর্ষপূর্তিতে বিক্ষোভে প্রদেশ কংগ্রেস

তারক ভট্টাচার্য

আমাদের ভারত, ৮ নভেম্বর: নোটবন্দির জন্যই আজ দেশের আর্থিক হাল এত করুণ। মন্দার কবলে পড়েছে গোটা দেশ। এই অভিযোগে নোটবন্দি ঘোষণার তৃতীয় বার্ষিকীতে শুক্রবার পথে নেমেছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব। বিক্ষোভের নেতৃত্বে ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র, রাজ্যের বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান-সহ অন্যান্যরা। উপস্থিত ছিলেন হাইকম্যান্ডের তরফে প্রদেশ কংগ্রেসের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা গৌরব গগৈও। মিছিলের পাশাপাশি, এদিন প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্ব রিজার্ভ সামনে মোমবাতি জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখান। নোটবন্দির কারণে যাঁদের মৃত্যু হয়েছিল, মোমবাতির আলোয় তাঁদের স্মরণ করেন।

রিজার্ভ ব্যাংকের কাছে কোল ইন্ডিয়ার অফিসের কাছে এক সভাও করে প্রদেশ কংগ্রেস। সভায় প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র বলেন, ‘কেন্দ্রীয় সরকার স্বৈরাচারী সিদ্ধান্ত নিয়ে নোটবন্দির ঘোষণা করেছিল। তার ফলে দেশের বহু শিল্প ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। দেশে বেকারত্ব ব্যাপকহারে বেড়ে গিয়েছে। পাশাপাশি, দেশের মোট জাতীয় উৎপাদনের পরিমাণও কমে গিয়েছে।’

রাজ্যের বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান সভায় অভিযোগ করেন, ‘কেন্দ্রের নোটবন্দির সিদ্ধান্ত দেশকে অন্ধকারের পথে ঠেলে দিয়েছে। দেশের কৃষি ব্যবস্থাকে কার্যত ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়েছে। মানুষকে নিজের কাজ ছেড়ে নোটবদলের জন্য পথে নামতে বাধ্য করেছে। কার্যত, দেশবাসীকে এক অসহায় অবস্থার দিকে ঠেলে দিয়েছে মোদি সরকার। সেই কারণে নোটবন্দির সিদ্ধান্তকে ধিক্কার জানাই।’

সভায় সোমেন মিত্র, আবদুল মান্নান ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দেবপ্রসাদ রায়, শুভঙ্কর সরকার, অমিতাভ চক্রবর্তী, মোক্তার-সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। বৃষ্টি উপেক্ষা করে এদিনের সভায় অসংখ্য কংগ্রেসকর্মী যোগ দিয়েছিলেন।

Leave a Comment

17 + 12 =

Welcome To Amaderbharat. We would like to keep you updated with the Latest News.